ভুট্টা দিয়ে সাজানো কৃষকের বাড়ি নজর কাড়ছে পথচারীর

প্রকাশিত: জুলাই ৩১, ২০২১; সময়: ১২:৫১ pm |

আসাদুজ্জামান মিঠু, বরেন্দ্র অঞ্চল : রাজশাহীর তানোর উপজেলা পাঁচন্দর ইউপির কুমন্দান গ্রামের কৃষক মিনাজুল ইসলাম। চলতি বছর দুই বিঘা জমি চাষ করা ভুট্টা সবগুলোই সাজানো রয়েছে তার মাটির বাড়ি দুইতলা টিনের ছাউনি বাড়িতে। নিচ থেকে দুইতলা পর্যন্ত বাড়ি চার পাশে সব খানেই ভুট্টার সাড়ি।

কৃষক মিনাজুলের বাড়ি পাশ ঘিসে রয়েছে পাকা সড়ক। এ সড়কে দিয়ে যত পথচারী চলাচল করছেন সবার নজর তার বাড়ি ঘিরে। কারণ মাটির বাড়িতে টিনের ছাউনি রয়েছে লালঠে তার নিচ দিয়ে সাজানো রয়েছে কমলা রংঙের হাজারো ভুট্টা। দেখতে দারুণ লাগছে।

অনেক পথচারী চলতি অবস্থাই কিছুক্ষন থেমে নিজের মোবাইলে ছবিও তুলছেন। অনেকে আবার লোভ সামলাতে না পেরে বাড়ি মালিকের কাছে একটি বা দুইটি চেয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

তানোর-মুন্ডুমালা প্রধান সড়কের কৃষপুর মোড় হয়ে গ্রামের মধ্যে দিয়ে মোহম্মপুর হাট পর্যš চলে গেছে এ পাকা সড়ক টি। এর মাঝেই কুমন্দান গ্রাম।

তবে, ভুট্টা দিয়ে বাড়ি সাজানো কৃষকের সখের বসে পাশাপাশি, ভুট্টা সংরক্ষণ করা হয়েছে এ পদ্ধতীতে বলে জানালেন কৃষক মিনাজুল।

তিনি বলেন, চলতি বছর দুই বিঘা জমিতে ভুট্টা চাষ করেছিলেন। ভুট্টা উঠানোর পরে বাজারে দাম একেবারে কম। তাই একটু থেমে বিক্রি করলে দাম বেশি পাওয়া যাবে ভেবে বর্ষার মৌসুমে টিনের ছাউনির নিচে রাখা হয়েছে। এতে করে ভুট্টার মান ভাল থাকবে। বাজারে দাম উঠলে সেগুলো নামাই বিক্রি করা হবে বলে জানান এ কৃষক।

তানোর উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সমশের আলী জানান, ভুট্টা সংরক্ষন করার একটি ভাল উপাই এটি। টিনের নিচে রেখে তাপমাত্রাও পাবে। এতে করে বর্ষার মৌসুমে ভুট্টার মান ভাল থাকবে। কৃষক মিনাজুলের পদ্ধতীটি অন্য কৃষকেরা দেখে উৎসাহ পাবে বলে জানান তিনি।

  • 329
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে