রাজশাহী অঞ্চলের ফিতরা নির্ধারণ

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৩, ২০২২; সময়: ৯:৫২ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী ও এর আশপাশের এলাকার জন্য এ বছর জনপ্রতি সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে ৭০ টাকা। আর সর্বোচ্চ ২ হাজার ৩১০ টাকাতেও ফিতরা আদায় করা যাবে।

রাজশাহী নগরীর দরগাপাড়ায় জামেয়া ইসলামিয়া শাহ মখদুম মাদ্রাসায় বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, মাদ্রাসার শিক্ষক, মুফতি, মুহাদ্দিস ও ওলামায়ে কেরামের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ও সোনাদীঘি জামে মসজিদের খতিব মালানা তৈয়বুর রহমান নিজামীর সভাপতিত্বে গত সোমবার ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে মাদ্রাসার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ৪২ টাকা কেজি দরে ১ কেজি ৬৫০ গ্রাম গমের হিসাবে সর্বনিম্ন ৭০ টাকায় ফিতরা আদায় করা যাবে। এ ছাড়া ৩ কেজি ৩০০ গ্রাম যব, খেজুর, কিসমিস বা পনিরের মূল্য ধরেও ফিতরা আদায় করা যাবে।

বর্তমান বাজারদর ৬০ টাকা কেজিদরে যবের হিসাবে ২০০ টাকা, ৩০০ টাকা কেজিদরে খেঁজুরের হিসাবে ৯৯০ টাকা, ৩৫০ টাকা কেজিদরে কিসমিসের হিসাবে ১ হাজার ১৫৫ টাকা এবং ৭০০ টাকা কেজিদরে পনিরের হিসাবে ২ হাজার ৩১০ টাকায় ফিতরা আদায় করা যাবে।

সবাই সর্বনিম্ন হারে ফিতরা আদায় না করে নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী ফিতরা আদায়ের জন্য সভা থেকে আহ্বান জানানো হয়েছে। জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটি গত ৯ এপ্রিল সর্বনিম্ন ৭৫ ও সর্বোচ্চ ২ হাজার ৩১০ টাকা ফিতরা নির্ধারণ করেছে। রাজশাহীর সর্বোচ্চ ফিতরা জাতীয় কমিটির সঙ্গে মিলে গেলেও সর্বনিম্ন ফিতরা জাতীয় কমিটির চেয়ে ৫ টাকা কম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে