মঙ্গলের শব্দ শুনল পৃথিবী

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২১; সময়: ৫:৩১ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : মঙ্গলগ্রহ থেকে পারসিভেরেন্সের পাঠানো একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। গত বৃহস্পতিবার নাসার নতুন রোভার পারসিভেরেন্স এর ধারণ করা এক ভিডিওতে রোভারটি কীভাবে মঙ্গলগ্রহে অবতরণ করেছে তা জানা গেছে।

আজ মঙ্গলবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, মঙ্গলগ্রহে সফলভাবে অবতরণের পর থেকেই সেখানকার ছবি পাঠাতে শুরু করে পারসিভেরেন্স। নতুন ভিডিও থেকে লাল গ্রহের দৃশ্য ও শব্দ সম্পর্ক আরও ভাল ধারণা পাওয়া যায়। মঙ্গলপৃষ্ঠের অবতরণের শেষ সাত মিনিটকে ‘শ্বাসরুদ্ধকর সাত মিনিট’ উল্লেখ করেছে নাসা।

পারসিভেরেন্সের গায়ে লাগানো ক্যামেরাগুলোতে প্রথমবারের মতো কোনও মহাকাশযানের মঙ্গল গ্রহে অবতরণের দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। রোভারটি মার্শিয়ান বায়ুমণ্ডলে প্রবেশের ২৩০ সেকেন্ড পরে ভিডিও শুরু হয়। রোভার থেকে একটি প্যারাসুট মার্শিয়ান পৃষ্ঠের সাত মাইল উপর থেকে নিচে অবতরণ করে।

রোভারে থাকা একটি মাইক্রোফোনে মঙ্গল গ্রহের প্রথম শব্দ রেকর্ড করা হয়। কয়েক সেকেন্ডের ওই অডিওতে মার্শিয়ান বায়ুমন্ডলের বাতাসের শব্দ শোনা যায় এবং রোভারটি পৃষ্ঠের উপরে পৌঁছালে এটির অপারেটিংয়ের শব্দ শুনতে পাওয়া যায়।

নাসার প্রকাশ করা ভিডিওতে লালগ্রহের মাটির ছবি দেখা গেছে। মঙ্গলের পৃষ্ঠে যে গর্ত রয়েছে সেটিও ভিডিওতে ধরা পড়েছে। মাটিতে অবতরণের সময় যে ধুলো উড়েছিল সেটিও ভিডিওতে দেখা গেছে এবং ঠিক তখনই মাইক্রোফোনে বাতাসের শব্দ ধরা পড়ে।

তবে, নাসা জানায়, মাইক্রোফোনে তেমন কোনো ‘ব্যবহারযোগ্য ডেটা’ ধারণ করা হয়নি। রোভারের টুইটার অ্যাকাউন্টে অডিওটিও পোস্ট করা হয়েছে। টুইটে বলা হয়েছে, ‘আপনারা আগে মঙ্গল দেখেছেন, এখন শুনুন। হেডফোন নিন এবং মাইক্রোফোনে ধারণ করা প্রথম শব্দগুলো শুনুন।’

নাসার সায়েন্স মিশন ডিরেক্টোরেটের সহযোগী প্রশাসক টমাস জুরবুচেন এক বিবৃতিতে বলেন, তরুণ নারী ও পুরুষ যারা পৃথিবীর বাইরে অন্য বিশ্বকে ঘুরে দেখতে চায় ও সেখানে যাওয়ার জন্য মহাকাশযান তৈরি করতে চায় তাদের সবারই ভিডিওটি দেখা উচিত। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বিকাল ৩টা ৫৫ মিনিটে মঙ্গলে অবতরণ করে পারসিভেরেন্স।

  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে