ফেসবুক ব্যবহারে সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য নির্দেশনা জারি

প্রকাশিত: মে ৮, ২০২০; সময়: ১২:০১ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে বেশকিছু বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে সরকারি গণকর্মচারীদের জন্য নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। বৃহস্পতিবার (৭ মে) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত পরিপত্র জারি করা হয়েছে।

এতে সরকারি গণকর্মচারীদেরকে ‘সরকারি প্রতিষ্ঠানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার নির্দেশিকা ২০১৯ অনুসরণ’র আহ্বান জানানো হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপব্যবহারের জন্য নিজেদের দায়ী থাকতে হবে জানিয়ে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথাও বলা হয়েছে। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অপব্যবহারকারী সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার কথাও বলা হয়েছে এই নির্দেশনায়।

পরিবত্রে বলা হয়েছে, সরকারি প্রতিষ্ঠানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি ও এর সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ‘সরকারি প্রতিষ্ঠানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার নির্দেশিকা ২০১৯’ (পরিমার্জিত সংস্করণ) প্রণয়ন করা হয়। ওই নির্দেশিকায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে সরকারি প্রতিষ্ঠান ও কর্মচারীদের করণীয় ও বর্জনীয় নির্ধারণ করা এবং এক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা নিশ্চিত করার বিষয়ে উল্লেখ করা হয়েছে।

‘উল্লেখিত নির্দেশিকায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দাপ্তরিক এবং ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট তৈরি করা এবং এতে পরিহারযোগ্য বিষয় উল্লেখ রয়েছে। এ ধরনের নির্দেশনার আলোকে সরকারের সব মন্ত্রণালয়/বিভাগ এবং এর আওতাধীন অধিদপ্তর/পরিদপ্তর/দপ্তর/সংস্থার গণকর্মচারীকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিম্নবর্ণিত বিষয়গুলো অনুসরণ করার অনুরোধ করা হলো।

১. সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে সরকার বা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয় এমন কোনো পোস্ট, ছবি, অডিও বা ভিডিও আপলোড, কমেন্ট, লাইক, শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

২. জাতীয় ঐক্য ও চেতনার পরিপন্থী কোনোরকম তথ্য-উপাত্ত প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

৩. কোনো সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগতে পারে এমন বা ধর্ম নিরপেক্ষতায় নীতি পরিপন্থী কোনো তথ্য উপাত্ত প্রকাশ করা যাবে না। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট বা আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ঘটতে পারে এরূপ কোনো পোস্ট, ছবি, ভিডিও আপলোড, কমেন্ট, লাইক, শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

৪. জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা অন্য কোনো সার্ভিস/পোশাকে হেয় প্রতিপন্ন করে এমন কোনো পোস্ট দেয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

৫. লিঙ্গ বৈষম্য বা এ সংক্রান্ত বিতর্কমূলক কোনো তথ্য উপাত্ত প্রকাশ করা যাবে না।

৬. জনমনে অসন্তোষ বা অপ্রীতিকর মনোভাব সৃষ্টি করতে পারে এমন কোনো বিষয় লেখা, অডিও বা ভিডিও ইত্যাদি প্রকাশ বা শেয়ার করা যাবে না।

৭. ভিত্তিহীন, অসত্য ও অশ্লীল তথ্য প্রচার থেকে বিরত থাকতে হবে।

৮. অন্যকোনো রাষ্ট্র বা রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য সম্বলিত কোনো পোস্ট, ছবি, অডিও বা ভিডিও আপলোড, কমেন্ট, লাইক, শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

‘বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে কন্টেন্ট ও ফ্রেন্ড সিলেকশনে সবাইকে সতর্কতা অবলম্বন এবং অপ্রয়োজনীয় ট্যাগ, রেফারেন্স বা শেয়ার করা পরিহার করতে হবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপব্যবহার বা নিজ অ্যাকাউন্টের ক্ষতিকারক কন্টেন্টের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মচারী ব্যক্তিগতভাবে দায়ী হবেন এবং সেজন্য প্রচলিত আইন ও বিধি বিধান অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে,’ বলে পরিপত্রে বলা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • রাজশাহীতে যুবককে পিটিয়ে হত্যা
  • সিরাজগঞ্জে সন্ত্রাসীদের হাতে যুবক খুন
  • কয়েক মাসের মধ্যেই করোনার অ্যান্টিবডি বিলীন
  • নওগাঁয় প্রতিবেশির লাঠির আঘাতে বৃদ্ধের মৃত্যু
  • ভারতে কমেছে সুস্থতার হার, আক্রান্ত ৯ লাখ ছাড়াল
  • কুমেকে আরও ৫ জনের মৃত্যু
  • রাজশাহী বিভাগে একদিনে শনাক্ত ২১৩, মৃত্যু বেড়ে ১১৭
  • পর্যটকদের জন্য খুলছে পৃথিবীর ভূ-স্বর্গ
  • সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন প্রায় ৭৭ লাখ
  • দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের যুদ্ধবিমানের নকশায় ভূমিকা রাখেন যে কিশোরী
  • হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
  • সাড়ে ছয়মাসে করোনায় মৃত্যু পৌনে ৬ লাখ
  • চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভারত থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ৯ জন আটক
  • সিরাজগঞ্জে করোনা সন্দেহে বাবাকে ফেলে গেলেন ছেলে
  • বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত আরও ৬৫ হাজার
  • উপরে