আগুয়েরোর মূর্তি বানাল ম্যানসিটি

প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২২; সময়: ৬:৩০ pm |
খবর > খেলা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ম্যানচেস্টার সিটির ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এক চরিত্র সার্জিও আগুয়েরো। ক্লাবটির ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি গোল করা খেলোয়াড় তিনি; সেটা তো আছেই, আগুয়েরোর গুরুত্ব আরও একটা কারণে সিটির জন্য বেশি।

২০১২ সালে তারই করা গোলে যে ৪৪ বছর পর লিগ জেতে সিটি! সেই ঐতিহাসিক গোলের ১০ বছর পূর্তিকে স্মরণীয় করে রাখতে নিজেদের স্টেডিয়ামের সামনে সার্জিও আগুয়েরোর ভাস্কর্য স্থাপন করেছে সিটি।

২০১২ সালের আজকের এই দিনে প্রিমিয়ার লিগের শেষ ম্যাচে ম্যানচেস্টার সিটি মুখোমুখি হয়েছিল কুইন্স পার্ক রেঞ্জার্সের, আর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রতিপক্ষ ছিল সান্দারল্যান্ড।

শেষ রাউন্ডের আগে ইউনাইটেড আর সিটি, দুই দলেরই পয়েন্ট ছিল ৮৬। তবে গোল ব্যবধানে ইউনাইটেড থেকে বড় ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় ম্যানসিটির সামনে সমীকরণ ছিল কেবলই একটা জয়। আর ইউনাইটেডের শিরোপা জেতার জন্য কেবল নিজেরা জিতলেই হতো না, পয়েন্ট খোয়াতে হতো সিটিকেও।

ওয়েইন রুনির একমাত্র গোলে কাজটা ভালোভাবেই সেরে রেখেছিল ইউনাইটেড। সিটিও এগিয়ে গিয়েছিল পাবলো জাবালেতার গোলে। তবে বিরতির পরই সফরকারী কিউপিআর এগিয়ে যায় জিবরিল সিসে আর জেমস ম্যাকির গোলে।

শেষ দিনে স্বপ্নভঙ্গের শঙ্কা তখন ভালোভাবেই চোখ রাঙানি দিচ্ছে সিটিকে। তবে যোগ করা সময়ের দুই গোলে স্বপ্নভঙ্গ এড়িয়ে ৪৪ বছর পর শিরোপা জেতে সিটি, যার শেষ গোলটা করেন আগুয়েরো।

আর্জেন্টাইন এই তারকা স্ট্রাইকার সেখানেই শেষ করেননি। এরপর সিটির হয়ে সর্বোচ্চ গোলের ইতিহাস গড়েছেন তিনি। ৩৯০ ম্যাচে করেছেন ২৬০ গোল।

তবে এত কিছুর পরেও ক্লাবের সামনে ভাস্কর্য বসেনি তার, সেখানে সাবেক খেলোয়াড় ভিনসেন্ট কোম্পানি ও ডেভিড সিলভার ভাস্কর্য বসে গিয়েছিল এতিহাদ স্টেডিয়ামের সামনে। সে অপেক্ষাটা ইংলিশ চ্যাম্পিয়নরা ঘুচিয়েছে সেই ঐতিহাসিক গোলের দশম বর্ষপূর্তিতে।

ক্লাবের সামনে তার ভাস্কর্য বসানোর পর ক্লাবটির চেয়ারম্যান খালদুন আল মুবারাক জানিয়েছেন, ‘সার্জিও আগুয়েরো ক্লাবে যে অবদান রেখেছে, সেটা আমাদের ক্লাবের ইতিহাসই বদলে দিয়েছে, আর বিষয়টা মোটেও অত্যুক্তি নয়। নিঃসন্দেহে সে এই খেলাটার সর্বকালের সেরাদের একজন।’

‘আমাদের সমর্থকরা যখন সার্জিওর কথা ভাবেন, তখন সেই ঐতিহাসিক ৯৩:২০ গোলটার কথাই মনে করেন। তবে তার ২৬০ গোলের রেকর্ড বলে, তার প্রভাবটা ক্লাবে অনেক বেশি।’

আগুয়েরোর সেই গোলের দশ বছর পূর্তি উদযাপন শুধু ভাস্কর্য বানিয়েই শেষ করেনি সিটি। এর আগে গেল সপ্তাহে অনুশীলনে বিশেষ জার্সি পরে খেলতে নেমেছিলেন ফোডেন-গ্রিলিশরা।

আকাশী সাদা স্ট্রাইপের সেই জার্সির পেছনে লেখা ছিল ‘আগুয়েরোওও’, যে কথা দশ বছর আগের সেই ম্যাচে সেই গোলের ধারাভাষ্য দিতে গিয়ে বলেছিলেন স্কাই স্পোর্টসের ধারাভাষ্যকার মার্টিন টাইলার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে