আবারও সাবেকের হাতে কপাল পুড়ল কলকাতার

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৬, ২০২২; সময়: ১০:৫২ am |
খবর > খেলা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আগের ম্যাচেই সাবেক খেলোয়াড় কুলদ্বীপ যাদবের কাছে হারতে হয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্সকে। এর ঠিক পরের ম্যাচেও একই নিয়তি হলো দলটির।

আরও একবার সাবেক নাইটের হাতে হারতে হলো দলটিকে। গত রাতে রাহুল ত্রিপাঠীর ঝোড়ো অর্ধশতকে সান রাইজার্স হায়দরাবাদের কাছে ৭ উইকেটে হেরেছে কলকাতা।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি কলকাতার। অ্যারন ফিঞ্চের উইকেট হারায় শুরুতেই। এরপর পাওয়ারপ্লে শেষ করে একই ওভারে ভেঙ্কেটেশ আইয়ার ও সুনীল নারাইনকে হারিয়ে। ৬ ওভার শেষে কেবল ৩৮ রান তুলতে পারে দলটি।

এরপর দলটির ইনিংস সামলানোর দায়িত্বটা নিজ কাঁধে তুলে নেন অধিনায়ক শ্রেয়াশ আইয়ার ও নীতিশ রানা। তবে কেকেআর অধিনায়ক বেশি দূর এগোতে পারেননি। ২৮ রান করে উমরান মালিকের ১৪৯ কিলোমিটার গতির ইয়র্কারে বোল্ড হন তিনি।

মাঝের ওভারগুলোতে নীতিশই ধরে রেখেছিলেন কলকাতার ইনিংস। করেন ফিফটিও। তবে এরপরই তিনি বিদায় নেন। শেষ দিকে এসে রাসেল অবশ্য বেশ ভালো এক ক্যামিও উপহার দেন কেকেআরকে। তার ২৫ বলে ৪৯ রানের সুবাদে তাদের দলীয় সংগ্রহটা গিয়ে ঠেকে ৮ উইকেটে ১৭৫ রানে।

চ্যালেঞ্জিং এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের। কামিন্সের বলে বোল্ড হয়ে যান অভিষেক শর্মা। রান পাননি অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও।

পাওয়ার প্লে-র শেষ ওভারে তাকে আউট করেন আন্দ্রে রাসেল। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছিল ম্যাচটা বুঝি কলকাতারই হাতে।

তখনই ব্যাট হাতে বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন ত্রিপাঠী। মাত্র ২১ বলে নিজের ৫০ করেন তিনি। তাকে সঙ্গ দিচ্ছিলেন এইডেন মার্করাম।

৭১ রান করে রাসেলকে বড় শট মারতে গিয়ে যখন আউট হন ত্রিপাঠী, ততক্ষণে ম্যাচের লাগামটা চলে এসেছে হায়দরাবাদের হাতে। শেষ পর্যন্ত ১৩ বল বাকি থাকতে ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে যান উইলিয়ামসনরা। মার্করাম ৬৮ রান করে অপরাজিত থাকেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে