বাংলাদেশকে পোড়ানো সেই স্টুয়ার্ট বিনি বিদায় বললেন ক্রিকেটকে

প্রকাশিত: আগস্ট ৩০, ২০২১; সময়: ১১:৩১ am |
খবর > খেলা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারটা একেবারেই সাদামাটা। যেখানে ১৪ ওয়ানডে, ৬ টেস্ট আর ৩ টি-টোয়েন্টিতেই আটকে যেতে হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা আলাদা করেই মনে রেখেছেন স্টুয়ার্ট বিনিকে। কারণ তিনিই যে সেই ২০১৪ সালে পুড়িয়েছিলেন টাইগারদের। বল হাতে তুলেছিলেন ঝড়। সেই স্টুয়ার্ট বিনি ইতি টানলেন ক্যারিয়ারের। ৩৭ বছর বয়সে বিদায় বললেন সব ফরম্যাটের ক্রিকেট থেকে।

ভারতীয় এই ক্রিকেটার বিদায়ের ঘোষণা দিয়ে সোমবার বলছিলেন, ‘আমি আপনাদের জানাতে চাই- আন্তর্জাতিক ও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সর্বোচ্চ পর্যায়ে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করাটা দারুণ উপভোগ করেছি আমি। গর্বিত ভারতীয় হিসেবেই আজ বিদায় বলছি।’

৭ বছর আগে বিনির কারণেই ভারতের বিপক্ষে জেতা হয়নি বাংলাদেশের। যেখানে ভারতকে মাত্র ১০৫ রানে অলআউট করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু সেই ম্যাচেই জিততে পারেনি টাইগাররা। বিনির বোলিং তোপে দল অলআউট মাত্র ৫৮ রানে। বাংলাদেশকে সর্বনিম্ন রানে অলআউট হয়েছিল মিডিয়াম পেসারের ঝড়ে।

মিরপুরে সেই ম্যাচে মাত্র ৪ রান দিয়ে বিনি নেন ৬ উইকেট। এটিই তার ক্যারিয়ারের সেরা সাফল্য। আর ওয়ানডে ক্রিকেটে এখনো এটি ভারতের কোন বোলারের ওয়ানডেতে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড।

সব মিলিয়ে স্টুয়ার্ট বিনি ৬ টেস্টে করেছেন ১৯৪ রান। নিয়েছেন ৩ উইকেট। ১৪ ওয়ানডেতে রান ২৩০। উইকেট ২০টি। এই অর্জনের স্মৃতি নিয়েই তিনি এখন সাবেকদের তালিকায়। বলছিলেন, ‘আমার ক্রিকেটীয় এই ভ্রমণে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের ভূমিকায় কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। তাছাড়া কর্ণাটকের সমর্থন না পেলে আমার ক্রিকেট ক্যারিয়ার শুরুই হত না। দলটিকে নেতৃত্ব দেওয়া আর শিরোপা জেতা অনেক সম্মানের। দারুণ তৃপ্তি নিয়ে বিদায় নিচ্ছি।’

স্টুয়ার্ট বিনির আরেকটি বড় পরিচয় অবশ্য ক্রিকেটপ্রেমীরদের জানা। তার বাবা ভারতের সাবেক ক্রিকেটার রজার বিনি। যিনি দেশটির হয়ে এক যুগেরও বেশি সময় ধরে খেলেছেন। আবার স্টুয়ার্ট বিনির স্ত্রীও খেলার দুনিয়ার মানুষ। গ্ল্যামার গার্ল মায়ান্তি আগারওয়াল ক্রিকেট সঞ্চালক হিসেবে আলাদা একটা জায়গাও করে নিয়েছেন।

  • 21
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে