নেইমারের ‘সমর্থন’ কেন,তা জানেন মেসি

প্রকাশিত: জুলাই ৭, ২০২১; সময়: ২:৪২ pm |
খবর > খেলা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আর্জেন্টিনাকে ফাইনালে পাওয়ার আশা আগেই জানিয়ে রেখেছিলেন নেইমার। পেরুকে ১-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে ওঠার পরই বলেছিলেন আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়া ম্যাচে তিনি বন্ধু লিওনেল মেসির পক্ষেই হাততালি দেবেন। ফাইনালে আর্জেন্টিনা কঠিন প্রতিপক্ষ হবে জেনেও কেন তাদেরই শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে চেয়েছিলেন, সেই ব্যাখ্যাও দিয়েছেন ব্রাজিলের তারকা। নেইমারের বিশ্বাস, ফাইনালে প্রতিপক্ষ হয়ে যে দলই আসুক, শিরোপা জিতবে ব্রাজিলই। তাই কলম্বিয়াকে হারিয়ে ‘বন্ধু’ মেসির দল আর্জেন্টিনা ফাইনালে উঠলে ক্ষতি কী!

নেইমারের চাওয়া পূরণ হয়েছে। আজ কলম্বিয়াকে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৭ মিনিটে মেসির পাসেই লাওতারো মার্তিনেজের গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। ৬১ মিনিটে গোলটি শোধ করে দেয় কলম্বিয়া। কোপা আমেরিকার নিয়মে অবশ্য অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের খেলা নেই। তাই ৯০ মিনিটে ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র থাকায় ফাইনালিস্ট বাছতে ম্যাচ সরাসরি গড়িয়েছিল টাইব্রেকারে। সেখানে গোলকিপার এমিলিয়ানো মার্তিনেজের বীরত্বে ফাইনালে আর্জেন্টিনা। টাইব্রেকারে প্রতিপক্ষের ৩টি পেনাল্টি ঠেকিয়ে নায়ক বনে গেছেন মার্তিনেজ।

তা নায়ক যিনিই হোন না কেন, নেইমারের ব্রাজিলের বিপক্ষে ফাইনাল খেলা নিয়ে রোমাঞ্চে ভাসছেন মেসি। ম্যাচ শেষে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছিল সেমিফাইনালে নেইমারের সমর্থন পাওয়া নিয়ে। এই প্রশ্নের উত্তরে টিওয়াইসি স্পোর্টসকে আর্জেন্টিনা অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমি জানি নেই (নেইমার) এটা (আর্জেন্টিনাকে সমর্থন করার কথা) কেন বলেছে। আমরা দুজন খুব ভালো বন্ধু। এ কারণেই সে চেয়েছে, আমিও যেন ফাইনালে উঠি।’

নেইমারের চাওয়া আর নিজেদের লক্ষ্য পূরণ করতে পেরে রোমাঞ্চিত মেসি। ম্যাচ শেষে টিওয়াইসি স্পোর্টসের সঙ্গে কথোপকথনে তিনি বলেছেন, ‘আমরা খুব রোমাঞ্চিত। আমাদের প্রথম লক্ষ্য ছিল ফাইনালে ওঠা। আমরা সে লক্ষ্য অর্জন করতে পেরেছি বলে বেশ রোমাঞ্চিত। অন্য যেকেনো সময়ের চেয়ে শিরোপা জয়ের জন্য বেশি উন্মুখ আমরা।’ কিন্তু ব্রাজিলকে হারিয়ে কাঙ্ক্ষিত সেই লক্ষ্য পূরণ কি এতটা সহজ হবে আর্জেন্টিনার। অন্যদিকে নেইমার তো আগেই হুমকি দিয়ে রেখেছেন—শিরোপা জিতবে ব্রাজিলই। মেসিকে এ বিষয়টি মনে করিয়ে দেওয়ার পর মেসির উত্তর, ‘আমি ও নেইমার দুজনেই এখন ফাইনালে। ফাইনালের লড়াই হবে সমানে সমান। দুই দলের জন্যই ম্যাচটা কঠিন হবে।’

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে