আইপিএলের পর এবার ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বন্ধের দাবি

প্রকাশিত: মে ১০, ২০২১; সময়: ১:৪২ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে লণ্ডভণ্ড ভারত। এমন পরিস্থিতিতে মাঝপথেই থেমে গেল দেশটির জমজমাট ফ্রাঞ্চাইজি লিগ-আইপিএল।

বাকি ৩১ ম্যাচ আর ভারতে হচ্ছে না বলে ইতোমধ্যে জানিয়েছেন খোদ ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) পরিচালক সৌরভ গাঙ্গুলী। তিনি এখন অক্টোবরে অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাবনায় ব্যস্ত।

এরই মধ্যে দাবি উঠেছে— টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বন্ধের। এ দাবির তালিকায় যুক্ত হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ব্যাটসম্যান ইয়ান চ্যাপেল।

এক ক্রিকেট ওয়েবসাইটের কলামে চ্যাপেল লিখেছেন— ‘কোভিড সংক্রমণে মানুষের মৃত্যু এবং ক্রিকেটারদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনাগুলো এটাই প্রমাণ করে দিয়েছে যে, করোনাকালের মাঝে ক্রিকেট খেলায় কী পরিমাণ ঝুঁকি নিতে হয়। এই ধ্বংসাত্মক পরিবেশে আইপিএল বন্ধ হওয়ার ঘটনা এটাও নিশ্চিত করল যে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও বাতিল কিংবা অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হতে পারে।’

অতীতেও প্রাকৃতিক দুর্যোগে পড়ে খেলা বন্ধ হয়েছে বলে জানান চ্যাপেল।

তিনি যোগ করেন, ১৯৭০-৭১ সালে প্রবল বৃষ্টির কারণে এমসিজিতে বক্সিং ডে টেস্টে একটাও বল খেলা হয়নি। ২০০৬ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে বল বিকৃতির অভিযোগে ম্যাচ মাঠে গড়ায়নি।

উল্লেখ্য, করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বিষয়ে খুবই সতর্ক বিশ্ব। এটি অন্যগুলোর চেয়ে ১০ গুণ শক্তিশালী। একজন থেকে ৪০০ জনে সংক্রমণের ক্ষমতা রাখে। এমন পরিস্থিতিতে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আমিরাতে সরিয়ে নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে আইসিসি। প্রথমে আইসিসির এমন পরিকল্পনায় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছিল ভারত।

তবে করোনার হানায় আইপিএল বাতিল হওয়ার পর সুর বদলেছে সৌরভ গাঙ্গুলীর বোর্ড। আগামী মাসে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভেন্যু নিয়ে সিদ্ধান্ত দেবে আইসিসি।

  • 57
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে