৫ কারণে ব্যাঙ্গালুরুর চেয়ে এগিয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস

প্রকাশিত: এপ্রিল ৯, ২০২১; সময়: ১:২১ pm |
খবর > খেলা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ক্রিকেটপ্রেমীদের অপেক্ষার প্রহর শেষ হচ্ছে। কয়েক ঘণ্টা পরই শুরু হতে যাচ্ছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রথম ম্যাচ।

গত আসরের মতো এবারও দর্শকশূন্য মাঠে খেলোয়াড়দের উজ্জীবিত করবে কৃত্রিম হই-হুল্লোড়।

প্রথম ম্যাচই হাইভোল্টেজ। একদিকে গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। অন্যদিকে অন্তত একবার ট্রফি ছুঁয়ে দেখার আশা করা রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

তামিলনাড়ুর চিপকে স্টেডিয়ামে রোহিত শর্মা বনাম বিরাট কোহলির লড়াই দেখতে মুখিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীরা।

প্রথম ম্যাচেই মুম্বাইয়ের পাল্লা ভারী দেখছেন বিশ্লেষকরা। এর পেছনে রয়েছে পাঁচটি কারণ।

১. হেড টু হেড পরিসংখ্যানে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস এগিয়ে। মুম্বাই ও আরসিবি এখনও পর্যন্ত আইপিএলে ২৭টি ম্যাচ খেলেছে। ১৭ ম্যাচ জিতেছে মুম্বাই। চ্যাম্পিয়নস লিগে দুটি ম্যাচই মুম্বাই জিতেছে। তবে চিপকে এখনও পর্যন্ত দুদল খেলেছে দুটি ম্যাচ। একটি করে ম্যাচ জিতেছে দুদলই।

২. মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে রয়েছে একের পর এক তারকা ব্যাটসম্যান। কোয়ারেন্টিন ইস্যুতে প্রোটিয়া উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি কককে প্রথম ম্যাচে না পেলেও সুযোগ পেতে পারেন ঈশান কিষাণ বা সূর্যকুমার যাদব। দুজনেই আছেন ফর্মের তুঙ্গে। দুজনেই টি-টোয়েন্টি স্পেশালিস্ট। বিশেষ করে সূর্যকুমার যাদবের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স ছিল অসাধারণ। আজ রোহিত শর্মার সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামতে পারেন ঈশান।

অন্যদিকে রয়াল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুতে (আরসিবি) বিরাট কোহলি ও এবি ডি ভিলিয়ার্স ছাড়া তারকা ব্যাটসম্যান তেমন নেই। যদিও অনেকের মতে, এই দুজনের জুটি দাঁড়িয়ে গেলে দলের জয় প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায়। দলের ভারতীয় তারকা দেবদত্ত পাড্ডিকালে ফর্ম ভালো যাচ্ছে না। সম্প্রতি করোনামুক্তির পর দলে ফিরলেও আজ প্রথম একাদশে থাকার সম্ভাবনা প্রায় নেই তার।

৩. মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে দুর্দান্ত অলরাউন্ডারের ছড়াছড়ি। এরা সবাই ফরমেও আছেন। হার্দিক পান্ডিয়া, কাইরন পোলার্ডের সঙ্গে এবার আইপিএল মাতাতে পারেন ক্রুনাল পান্ডিয়াও। এদিকে আরসিবির কাছে অবশ্য অসি অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল রয়েছেন। কিন্তু গত মৌসুমে তার পারফরম্যান্স হতাশ করেছে ভক্তদের। রীতিমতো সুপার ফ্লপ তিনি। আইপিএলের মতো জমজমাট আসরের গত মৌসুমে একটিও ছক্কা হাঁকাতে পারেননি তিনি। তাকে কেন ১০ কোটি রুপিতে কিনেছিল পাঞ্জাব কিংস তা নিয়েও সমালোচনা করেন সাবেক তারকারা। এবার আরসিবির হয়েও তিনি না জ্বললে ভারতীয় টেলএন্ডার ওয়াশিংটন সুন্দরের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে কোহলিকে।

৪. এবার আসা যাক বোলিং ডিপার্টমেন্ট বিষয়ে। মু্ম্বাইয়ের বোলিং ইউনিট দুর্দান্ত। সেখানে রয়েছেন ভারতের এ মুহূর্তের সেরা পেসার জসপ্রিত বুমরাহ, নাথান কুল্টার নাইল, অ্যাডাম মিলনে, জেমস প্যাটিনসন, আর কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্টের মতো তারকা। স্পিনারদের মধ্যে রাহুল চাহার, পীয়ূষ চাওলা কার্যকরী হতে পারেন। অন্যদিকে আরসিবির কাছে অবশ্য কাইল জেমিসন ও আইপিএলের গত আসরের দুর্দান্ত পারফরমার মোহাম্মদ সিরাজ রয়েছেন। নবদীর সাইনিও ভেলকি দেখাতে পারেন। তাদের স্পিনার স্পেশালিস্ট হিসেবে রয়েছেন যুজবেন্দ্র চাহাল। অনেকের মতো বোলিং আক্রমণে তুলনামূলক মুম্বাই-ই সেরা।

৫. পরিসংখ্যান বলছে চিপকের উইকেট স্পিনবান্ধব। এই উইকেটে যুজবেন্দ্র চাহাল কার্যকরী হতে পারেন। কিন্তু সম্প্রতি তার ফর্ম ভালো যাচ্ছে না। এদিকে আবার পিয়ূষ চাওলার মতো লেগস্পিনার বিরাট কোহলিকে সহজে রান নিতে দেবেন না এই উইকেটে। ম্যাচের নায়কে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা তার প্রবল।

  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে