ভারতকে নিয়ে ছেলে খেলায় মাতলো ইংল্যান্ড

প্রকাশিত: মার্চ ২৭, ২০২১; সময়: ১:০১ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ভারতকে নিয়ে এক প্রকার ছেলে খেলায় মেতেছিলো ইংল্যান্ড। শুক্রবার রাতে ৩৩৬ রান করেও হারতে হয় রোহিত-কোহলিদের। ইংল্যান্ড জিতে ৬ উইকেটে ও ৩৯ বল হাতে রেখে।

ভারতের দেয়া ৩৩৭ রানের বড় লক্ষ্যে তারা করতে নেমে ইংল্যান্ডকে উড়ন্ত শুরু এনে দেন দুই ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ও জেসন রয়। দলীয় ১৬তম ওভারের তৃতীয় বলে ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হয়ে সাজঘরে ফেরত যান জেসন রয়। ভেঙে যায় ১১০ রানের উদ্বোধনী জুটি। ৭ চার ও ১ ছক্কায় ৫২ বলে ৫৫ রান করে আউট হন রয়। এরপর বেয়ারস্টো জুটি বাধেন বেন স্টোকসের সঙ্গে।

শুরুতে কিছুটা ধীরগতি ছিল স্টোকসের ব্যাটিংয়ে। তবে যতই সময় গড়িয়েছে ততই বিধ্বংসী হয়েছেন তিনি। কুলদিপ ইয়াদবকে ৩৩তম ওভারে হাঁকিয়েছেন টানা তিন ছক্কা। যদিও আক্ষেপ নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে স্টোকসকে।

ওয়ানডে ক্যারিয়ারের চতুর্থ শতক থেকে এক রান দূরে থেকে সাজঘরে ফেরত যেতে হয় তাকে। ভুবেনেশ্বর কুমারের শর্ট বলে পুল করতে চেয়েছিলেন স্টোকস। কিন্তু ব্যাট ছুঁয়ে সেটা চলে যায় ঋষভ পান্তের গ্লাভসে। ৪ চার ও ১০ ছক্কায় ৫২ বলের ইনিংসটি থামে ৯৯ রানে।

শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলতে থাকা বেয়ারস্টো অবশ্য ঠিকই সেঞ্চুরি পেয়েছেন। ১১ চার ও ৭ ছক্কায় ১১২ বলে ১২৪ রান করেন তিনি। বিরাট কোহলির হাতে ক্যাচ দিয়ে তিনি সাজঘরে ফেরেন প্রষিধ কৃষ্ণার হাতে ক্যাচ দিয়ে। এরপর শূন্য রানে জস বাটলারও আউট হয়ে যান।

তবে সেটা দলের জয়ের জন্য কোনো বাধা সৃষ্টি করেনি। ডেভিড মালান ২৩ বলে ১৬ ও লিয়াম লিভিংস্টোন ২১ বলে ২৭ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করেন। ভারতের পক্ষে ১০ ওভারে ৫৮ রান দিয়ে দুই উইকেট পান পেসার প্রষিধ কৃষ্ণা।

এর আগে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ন মরগান। শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে দ্রুতই দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। ১৭ বলে ৪ রান করে রেস টপলের বলে সাজঘরে ফেরত যান শিখর ধাওয়ান।

৫ চারে ২৫ বলে ২৫ রান করে আউট হন রোহিত শর্মাও। এরপর লোকেশ রাহুলকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দুজন মিলে গড়েন ১২১ রানের জুটি। কোহলি অবশ্য নিজের সেঞ্চুরি খরা কাটাতে পারেননি এই ম্যাচেও। ৩ চার ও ১ ছক্কায় ৭৯ বলে ৬৬ রান করে আউট হয়ে যান তিনি।

তবে ঠিকই সেঞ্চুরি তুলে নেন রাহুল। তার ৭ চার ও ২ ছক্কায় ১১৪ বলের ইনিংসটি থামে ১০৮ রানে। তবে ভারতের ইনিংসটি বিশাল হওয়ার বড় কৃতিত্বটা পাবেন ঋষভ পান্ত। ৩ চার ও ৭ ছক্কায় ৪০ বলে ৭৭ রান করেন তিনি।

শেষদিকে ঝড় তুলেন হার্দিক পান্ডিয়াও। ১ চার ও ৪ ছক্কায় ১৬ বলে ৪৫ রান করে আউট হন তিনি। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩৩৬ রানে থামে ভারত। ৮ ওভারে ৫০ রান দিয়ে দুই উইকেট পান রেসে টপলে।

  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে