উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে কথা রেখেছেন অনিল কুমার

প্রকাশিত: মে ৯, ২০২২; সময়: ৩:৩৫ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগমারা : জনগণের কাছে দেয়া নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে নিরলস ভাবে কাজ করে চলেছেন রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও বাগমারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার। অনিল কুমার সরকার ২০১৯ সালের ১০ মার্চ রাজশাহীর বাগমারায় ভোটারদের প্রত্যক্ষ ভোট উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনী হন।

নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণা সহ তাঁর নির্বাচনী ইশতেহার ছিল ঘুষ, দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি বন্ধ করা। বিজয়ী হওয়ার পর ৯ মে ২০১৯ সালে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন অনিল কুমার সরকার। সফল ভাবে তিনটি বছর পার করেছেন তিনি।

তিন বছর পূর্তিতে সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে আগত লোকজনকে মিষ্টিমুখ করান তিনি। দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে বন্ধ হয়েছে ফাইল অনুমোদনে বকশিস বা ঘুষ নেয়ার প্রচলন। সরকারের টাকা উন্নয়নের কাজে ব্যয় হয়ে। সরকারের উন্নয়নের টাকায় ভাগ বসানোর কোন দরকার নেই। সরকার তো প্রতি মাসে সম্মানী প্রদান করেন। তাহলে বাড়তি কেন নিতে হবে।

চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পরপরই খাদ্য গুদামের সিন্ডিকেট ভাঙ্গেন তিনি। এরপর বন্ধ করা হয়েছে সমাজসেবা কার্যালয় সহ প্রতিটি দপ্তরের তদবির সিস্টেম। প্রতিটি ক্ষেত্রে ভাতা বা সুবিধা পাওয়ার যোগ্য এমন ব্যক্তিরাই যেন সেই সুবিধা পেতে পারে সে ব্যবস্থা গ্রহণ করেন তিনি।

স্কুল-কলেজ, রাস্তাঘাট সহ সকল প্রকার উন্নয়নে রেখেছেন সুদৃষ্টি। কোন ভাবে সেখান থেকে যেন কেউ অবৈধ ভাবে সুবিধা আদায় করতে না পারে। আগের যে কোন সময়ের চেয়ে স্বচ্ছ ভাবে পরিচালিত হচ্ছে উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম। কোন মানুষ যেন সেবা নিতে এসে হয়রানির শিকার না হয় সে দিকে সর্বদায় নজর রাখছেন তিনি।

উপজেলা চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা প্রতিক দিয়েছিলেন। দলীয় প্রতিক নিয়ে আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। গ্রাম হবে শহর। প্রধানমন্ত্রীর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করার লক্ষ্য নিয়ে ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপির সার্বিক সহযোগিতায় সততা ও নিষ্ঠার সাথে চেয়ারম্যান হিসেবে জনগণের দ্বারপ্রান্তে থেকে সেবা দিয়ে চলেছি। আমার কাছে বৈধ কাজ নিয়ে আসলে কাউকে ফিরে যেতে হয় না। অন্যায়কে আমি মেনে নিতে পারি না। সৃষ্টিকর্তার আর্শিবাদে সফলতার সাথে তিন বছর পার করেছি। আগামী দুই বছর যেন সততার সাথে পার করতে পারি যে জন্য উপজেলাবাসীর সহযোগিতা কামনা করছি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে