রাজশাহীতে গ্রেপ্তার পুলিশের সোর্সের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৬, ২০২২; সময়: ১০:৩৯ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক: র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া ‘পুলিশের এক সোর্সের’ শাস্তির দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন হয়েছে। শনিবার সকালে নগরীর শালবাগান মোড়ে এই কর্মসূচি পালন করেন ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। এতে সংহতি প্রকাশ করে অংশ নেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারও।

গ্রেপ্তার হওয়া এই ব্যক্তির নাম রুবেল। এলাকাবাসীর অভিযোগ, নগরীর চন্দ্রিমা থানা পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করতে রুবেল। তার কথায় অনেককে মাদক দিয়ে হয়রানি করা হয়েছে। এলাকায় কোন দ্বন্দ্ব হলে থানায় গিয়ে দেন দরবারের মাধ্যমে টাকা নেওয়া, নিজেই মাদক ব্যবসা করাসহ নানা অপকর্মের অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।

গত ১০ এপ্রিল দিবাগত রাতে র‌্যাবের অভিযানে রুবেল প্রায় ২৮ কেজি মাদকদ্রব্যসহ গ্রেপ্তার হন। এতে স্বস্তি পেয়েছেন এলাকাবাসী। কিন্তু এখন রুবেলের সহযোগীরা এলাকার লোকজনকে হুমকি দিচ্ছেন। এলাকার গণ্যমান্য অনেকের নামে সামাজিক মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য ছড়ানো হচ্ছে। এসবের প্রতিবাদেই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সকালে নগরীর আসাম কলোনী এলাকার প্রায় পাঁচ শতাধিক মানুষ একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। পরে শালবাগান বাজার এলাকায় তারা মানববন্ধন করেন। মানববন্ধন থেকে রুবেলের বিষয়ে চন্দ্রিমা থানা পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে এসবের তদন্ত দাবি করা হয়।

মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী তিনটি বিষয়ে জিরো টলারেন্স রেখেছেন। তার মধ্যে মাদক অন্যতম। আসাম কলোনী এলাকার মানুষ শান্তিপ্রিয়। একজন রুবেলের মতো মাদক ব্যবসায়ীর কারনে গোটা এলাকার যুব সমাজ ধ্বংস হয়ে যাবে এটা মেনে নেওয়া যায়না। তাই রুবেলের যেন জামিন না হয়। তার যেন শাস্তি নিশ্চিত হয়।

কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন ১৮ নম্বর ওয়ার্ড (দক্ষিণ) আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুজ্জামান নুরু। আরও বক্তব্য দেন- মহানগর যুবলীগের সহ-সভাপতি মোখলেসুর রহমান, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. মনিরুজ্জামান, ১৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের (দক্ষিণ) সাধারন সম্পাদক মজিবর রহমান, যুবনেতা সাদ্দাম হোসেন, উজ্জল হোসেন প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে