গ্রেপ্তার হয়নি সাংবাদিকদের হত্যার হুমকি দেয়া সেই সন্ত্রাসী

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৬, ২০২২; সময়: ১০:৩৫ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় পুকুর খনন করাকে কেন্দ্র করে দ্বন্দ্বের খবরে সংবাদ সংগ্রহ করতে সাংবাদিকগণ ঘটনা স্থলে উপস্থিত হলে সাংবাদিকদের অশ্লীল ভাষায় গালি দিয়ে হত্যার হুমকি প্রদান করে দুলাল নামের এক দুর্বৃত্ত। গত বুধবার ১৩ এপ্রিল উপজেলার আউচপাড়া ইউপির পালোপাড়া গ্রামে এ ঘটনার জন্ম দেন সন্ত্রাসী দুলাল।

সাংবাদিদের অশ্লীল ভাষায় গালি ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে বাগমারা থানায় দুলাল সহ অজ্ঞাত ২/৩ কে আসামি করে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। এ ঘটনায় সাংবাদিকদের প্রকাশ্য-দিবালোকে হুমকি প্রদানের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দার ঝড় বইছে। তারা প্রশাসনের নিকট সন্ত্রাসী ও সুদখোর দুলাল সহ এঘটনায় জড়িত সকলের শাস্তির দাবী জানিয়েছেন।

জানা যায়, দুর্বৃত্ত দুলাল বাগমারার উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের রক্ষিতপাড়া গ্রামের মৃত ইসরাইলের ছেলে। সে মোহনপুর উপজেলার ধামিন নওগাঁ উচ্চ বিদ্যালয়ে ল্যাব সহকারি পদে চাকুরিরত। বর্তমানে সে অত্র ইউনিয়নের পালোপাড়া গ্রামে বসবাস করে। এলাকায় দুলাল একজন সুদের ব্যবসায়ী ও একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত।

আরো জানা যায়, আউচপাড়া ইউনিয়নের পালোপাড়া গ্রামে পুকুর খনন করাকে কেন্দ্র করে পুকুর খননকারীদের নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বের খবরে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা ঘটনাস্থলে সংবাদ সংগ্রহের জন্য উপস্থিত হন। এ সময় ঘটনাস্থল উপস্থিত ছিলেন বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক সুফিয়ান ও তার টিম এবং আউচপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ডিএম শফিকুল ইসলাম শাফি সহ আরো অনেকে। সাংবাদিকদের উপস্থিতির পরেই ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, চেয়ারম্যান ডিএম শফিকুল ইসলাম শাফি সহ অন্যন্যরা।

তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সাথে সাথেই দুলাল নামের এক দুর্বৃত্ত উপস্থিত সাংবাদিকদের অকারণে অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ ও মেরে ফেলার হুকমি দিতে থাকে। এ বিষয়ে জাতীয় দৈনিক আজকের বসুন্ধরা পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার (রাজশাহী) আনছার আলী গত ১৪ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) বাগমারা থানায় উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের পক্ষে বাগমারার উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের রক্ষিতপাড়া গ্রামের মৃত ইসরাইলের ছেলে দুলাল হোসেন সহ অজ্ঞাত ২/৩ জনকে (৪০) বিবাদী করে ঘটনাটির সরজমিনে তদন্ত করে আইনানুগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাক আহমেদ অভিযোগ প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটির ভিডিওটিও হাতে পেয়েছি। আইনুগত ভাবে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে