গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় আপোষহীন মাদার বখশ্

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২০, ২০২২; সময়: ৮:১৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক :  অবিভক্ত বাংলার প্রাদেশিক আইন পরিষদ সদস্য (এমএলএ), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রতিষ্ঠাতা, উত্তরবঙ্গে শিক্ষা বিস্তারের অন্যতম অগ্রদূত, রাজশাহী পৌরসভার আদর্শ চেয়ারম্যান ও খ্যাতিমান গরিবের আইনজীবী জননেতা মাদার বখশ্ উত্তরাঞ্চলে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় ছিলেন আপোষহীন।

তিঁনিই একমাত্র এমএলএ, যিঁনি সরকারের সমালোচনা করেছিলেন জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য। তাঁর আদর্শ ধারণ করেই অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) বিকেলে মাদার বখশ্‘র ৫৫ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রাজশাহীতে এক স্মরণ সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ যৌথভাবে এ কর্মসূচির আয়োজন করে। সংগঠন দুটির সভাপতি ও জননেতা মাদার বখশ্-এর নাতি সাইদুর রহমান এতে সভাপতিত্ব করেন। সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আসলাম-উদ-দৌলার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রাজশাহী প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য বিশিষ্ট কলামিস্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত কুমার সাহা।

এ সময় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেনÑ রাজশাহী সিটি প্রেসক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ জুলফিকার, রাজশাহী প্রেসক্লাবের সহ: সভাপতি আবু সালে মোহাম্মদ ফাত্তাহ, রাজশাহী বারের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজী শওকত সালেহিন এলেন, জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদের সহঃ সভাপতি সালাউদ্দীন মিন্টু, প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক আমানুল্লাহ আমান, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট হোসনে আলী পেয়ারা, সিনিয়র সদস্য শরিফ উদ্দিন প্রমূখ।

সভায় জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদের ২৫ নম্বর ওয়ার্ড আহবায়ক ইউসুফ আলী, সদস্য মাজেদুর রহমান, আরিফুল ইসলামসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন। স্মরণ সভায় বক্তারা বলেন, একজন জনবান্ধন নেতা ছিলেন মাদার বখশ্। সারাজীবন কাজ করেছেন উত্তরাঞ্চলের মানুষের জন্য।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ার ক্ষেত্রে তাঁর অবদান ছিল অগ্রগণ্য। আইন পেশার সঙ্গে যুক্ত থেকে সহায়তা করেছেন অভাবী-দরিদ্র মানুষদের। সভায় তার আদর্শ ধারণ করে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন বক্তারা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে