রাজশাহীতে স্কুল কমিটিতে অযোগ্য লোককে ডিও দেয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৪, ২০২২; সময়: ৫:৩২ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : দুর্গাপুর উপজেলার পানানগর দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করার জন্য সদ্য ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে অবস্থানকারী পানানগর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আহসান হাবিবকে স্থানীয় সংসদ সদস্যর বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে ডিও লেটার দেওয়ার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও গ্রামবাসী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পানানগর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন পানানগর দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন প্রাক্তণ প্রধান শিক্ষক আবু এমদাদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, বর্তমানে পানানগর দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দায়িত্ব রয়েছেন বিএনপি নেতা আব্দুর রাজ্জাক। বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা সভাপতি গঠনের লক্ষে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. মনসুর রহমান, সদ্য ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করা ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আহসান হাবিবকে টাকার বিনিময় ডিও লেটার দিয়েছেন।

নৌকার বিপক্ষে কাজ করা হাবিবকে সভাপতি না করতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, মুক্তিযোদ্ধা ও গ্রামবাসী মিলে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাককে অনুরোধ করেন। কিন্তু বিএনপি নেতা প্রধান শিক্ষক রাজ্জাক ও সাংসদ মনসুর রহমান আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মী ও স্থানীয় জনগণকে উপক্ষে করে বির্তকিত ব্যক্তি হাবিবকে সভাপতি করতে সর্বশক্তি প্রয়োগ করেন।

এছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে, সদ্য সমাপ্ত উপজেলার সাতটি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. মনসুর রহমানের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের পক্ষে অবস্থান নিয়ে ছিলেন বলে অভিযোগ করা হয়। নৌকার বিপক্ষে অবস্থানের ফলে সাংসদের নিজ ওয়ার্ড আড়ইল ভোটকেন্দ্রে নৌকাকে ৫৬৭ ভোটে ফেল করে।

নির্বাচনের পর থেকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদের নিয়ে বিভিন্ন জায়গা সভা সমাবেশ করছেন সাংসদ ডা. মনুসর রহমান।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে প্রাক্তণ প্রধানশিক্ষক এমদাদুল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন- পানানগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রমজান আলী মোল্লা, দুর্গাপুর সরকারী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তণ প্রধান শিক্ষক বীরমুক্তিযোদ্ধ আব্দুস সামাদ, পানানগর ইউপি আওয়ামী লীগের সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক এসএম কহিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম, স্থানীয় ওয়াড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাহাদুর সরকার, পানানগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি সহ গ্রামবাসী উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে জানতে রাজশাহী- ৫ (দুর্গাপুর পুঠিয়া) আসনের সংসদ সদস্য প্রফেসর ডা. মনসুর রহমানের ব্যবহৃত মোবাইলে ফোনে একাধিক বার কল করা হলে ফোন রিসিপ করেন সাংসদের পিএস শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, স্যার মিটিং ব্যস্ত আছেন, এখন কথা বলতে পারবে না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে