রাজশাহীতে অক্টোবর মাসে ২১ জন নারী ও শিশু নির্যাতিত

প্রকাশিত: অক্টোবর ৩১, ২০২১; সময়: ৭:৩৩ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : হত্যা ১, হত্যার চেষ্টা ১, আত্মহত্যা ৩, ধর্ষণ, নির্যাতন ও যৌন নির্যাতন ১০ অপহরণ, নিখোঁজ, ভিকটিম অফ পর্নোগ্রাফী ৬ নারী ও শিশু। উন্নয়ন সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) অত্র জেলায় দীর্ঘদিন যাবৎ নারী ও শিশুর উন্নয়নে কাজ করছে।

মানবাধিকার সংগঠন হিসেবে লফস সংস্থার ডকুমেন্টেশন সেল থেকে রাজশাহীর প্রচারিত দৈনিক পত্রিকার সংবাদের ভিত্তিতে নিয়মিত নারী ও শিশু নির্যাতনের পরিস্থিতি প্রকাশ করে। লফস মনে করে অত্র অঞ্চলে নারী ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি বিভিন্ন মাত্রায় অবনতি ঘটছে।

যৌতুক ও পরকীয়ার কারনে অধিকাংশ নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। অনেক ক্ষেত্রে বিদেশি কিছু টিভি সিরিয়াল পরকিয়াকে উৎসাহিত করছে। এছাড়া পারিবারিক কলহ ও প্রেম ঘটিত কারনে হত্যা-আত্মহত্যা ও অমানবিক নির্যাতনের মতো ঘটনা ঘটছে। দির্ঘদিন লকডাউনে কর্মহীনতাও বাল্য বিবাহ ও নির্যাতনের মতো অপাধগুলো বৃদ্ধি পেয়েছে। বিষয়গুলো কারও জন্য সুখকর নয়।

অক্টোবর মাসে অমানবিক কিছূ ঘটে যাওয়া ঘটনার চিত্র – পুঠিয়া উপজেলার ভাড়রা গ্রামের সেরজান (৯৩) নামের এ বৃদ্ধা নিখোঁজ, নগরীতে হড়গ্রাম স্টেশন থেকে প্রেমীকা সোনিয়া (১৯) কে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে তাকে অপহরণ করার অভিযোগ, নগরীর পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে ট্রেন পরিচালক (গার্ড) তৌফিকুর রহমান খাঁন এর বিরুদ্ধে বিয়ের নামে ধর্ষণের অভিযোগ, বাগমারা উপজেলার হামিরকৎসা ইউনিয়নে শাহ রেজা আশ ইমনের বিরুদ্ধে এক গৃহবধুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ, পুঠিয়ায় বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের ভিডিও ধারন করে টাকা দাবী এবং অশ্লীল ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় মামলা করায় ভুক্তভোগী নারীকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ।

পুঠিয়ায় বিয়ে করে পম্পা রানী দাস (২১) কে অস্বীকার এর অভিযোগ, পুঠিয়া উপজেলার ভালুকগাছি ইউনিয়নের পানানগর গ্রামে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর (২২) পর্নোগ্রাফী’র অভিযোগ, নগরীর ভদ্রা চকপাড়ায় অক্ষর একাডেমি স্কুলের পরিচালক ছাত্র ও তার মা কে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ, তানোর এক নেতার বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ ও বিয়ে করেও অস্বীকার এবং ভ্রুন হত্যার অভিযোগ, বাঘায় শাওতাল পরিবারের নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ, একই উপজেলায় স্বামীকে তালাক দেওয়ায় কলেজ পড়ুয়া স্ত্রীকে (১৯) অপহরণের অভিযোগ, নগরীর তেরখাদিয়া এলাকায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী কে নির্যাতনের অভিযোগ, বাগমারা উপজেলায় এক কিশোরীকে (১৪) অপহরণের অভিযোগ, দুর্গাপুর উপজেলায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় জীবন আলী (১৫) নামের কিশোর অভিমানে আত্মহত্যা, নগরীর খাদেমুল ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্রী বর্ষা (১৫) কে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাতুড়ি আঘাতে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ, পারভেজ রানা (১৭) নামে স্কুল ছাত্র প্রেমে ব্যর্থ হয়ে আত্মহত্যা, বাগমারা উপজেলায় বাবার সাথে পারিবারিক কলহের জের ধরে ছাত্রকে পিটিয়ে আহত করেছেন এক শিক্ষক, মোহনপুরের বাদেজুল গ্রামে তামিম হোসেন (১৫) নামের কিশোর পড়াশোনা না করায় তার বকা দিলে অভিমানে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা, পুঠিয়া উপজেলার জিউপাড়া ইউনিয়নের কানাইপাড়া গ্রামে ৮ম শ্রেণির এক ছাত্রী স্কুল যাতায়াতের সময় বখাটেরা উত্ত্যক্ত করায় প্রতিবাদ করলে ভাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় মারধরের অভিযোগ, বাঘার আড়ানী বাজারে দোকানে চা দিতে দেরি করায় পৃথিবী হালদার নামের (১০) তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রকে গায়ে গরম চা ঢেলে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগের ঘটনাগুলো সকলের জন্য উদ্বেগজনক।

লফস এর নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন বলেন সংবাদ পত্রে প্রকাশিত ঘটনার বাইরেও অনেক ঘটনা ঘটে যা প্রকাশিত হয় না বা কোন তথ্য জানা যায় না এমন বাস্তবতায়। রাজশাহীতে নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রকাশিত তথ্য হতাশাজনক। রাজশাহী অঞ্চলে নারী – শিশু নির্যাতন সহ সার্বিক ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত ও দায়ীদের দিষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। তিনি বলেন অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা না গেলে ক্রমশই অপরাধীরা উৎসাহিত হবে এবং অপরাধের মাত্রা বৃদ্ধি পাবে। লফস সকল নারী-শিশু নির্যাতন ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত স্বাপেক্ষে অপরাধীর কঠোর শাস্তির দাবী জানান।

অক্টোবর মাসের নারী ও শিশু পরিস্থিতির তথ্য তুলে ধরা হলো-
হত্যাঃ শিশু – ০০ জন নারী – ০১ জন মোট – ০১ জন
হত্যার চেষ্টাঃ শিশু – ০১ জন নারী – ০০ জন মোট – ০১ জন
আত্বহত্যা ঃ শিশু – ০৩ জন নারী – ০০ জন মোট – ০৩ জন
ধর্ষন ঃ শিশু – ০০ জন নারী – ০৩ জন মোট – ০৩ জন
অপহরণঃ শিশু – ০১ জন নারী – ০২ জন মোট – ০৩ জন
নির্যাতনঃ শিশু – ০৩ জন নারী – ০২ জন মোট – ০৫ জন
যৌন নির্যাতনঃ শিশু – ০১ জন নারী – ০১ জন মোট – ০২ জন
নিখোঁজঃ শিশু – ০০ জন নারী – ০১ জন মোট – ০১ জন
ভিকটিম অফ পর্নোগ্রাফীঃ শিশু – ০০ জন নারী – ০২ জন মোট – ০২ জন

সর্বমোট – শিশু – ০৯ জন নারী – ১২ জন মোট – ২১ জন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে