বিএফইউজে নির্বাচন : রাজশাহীতে যুগ্ম মহাসচিব রিপন, সদস্য লিটন-সুমন নির্বাচিত

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৩, ২০২১; সময়: ৯:১০ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে উৎসবমুখর পরিবেশে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন (আরইউজে) কার্যালয়ে ভোটগ্রহণ করা হয়।

ঢাকাসহ সারাদেশের মোট ১০টি কেন্দ্রে এই নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হয়। অঙ্গ সংগঠন হিসেবে সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্যরা এই নির্বাচনের ভোটার। রাজশাহীতে ভোটার ৬৭ জন। এর মধ্যে ৬৪ জন সদস্য ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

ভোট গণনা শেষে সন্ধ্যায় আরইউজে কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এতে সহসভাপতি পদে মাহামুদুল আলম নয়ন (বগুড়া) ৩৩ ও শিবলী নোমান (রাজশাহী) ৩০ ভোট পেয়েছেন। যুগ মহাসচিব পদে রাশেদ ইবনে ওবায়েদ রিপন (রাজশাহী) ৩৪ ও জাবীদ অপু (রাজশাহী) ২৫ ভোট ও সৌরভ হাবিব ১ ভোট পেয়েছেন। এ দুই পদে বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্যরাও ভোট দিয়েছেন। দুই ইউনিয়নের ভোটের হিসাব করেই প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছে।

বগুড়ায় সহসভাপতি পদে মাহমুদল আলম নয়ন ৭৩ ও শিবলী নোমান ২ ভোট পেয়েছেন। যুগ্ম মহাসচিব পদে বগুড়ায় রাশেদ ইবনে ওবায়েদ রিপন ৫৬ এবং জাবীদ অপু ৪ ভোট ও সৌরভ হাবিব পেয়েছেন ২ ভোট। ফলে রাজশাহী বিভাগ থেকে বিএফইউজের সহসভাপতি পদে নয়ন এবং যুগ্ম মহাসচিব পদে রাশেদ ইবনে ওবায়েদ রিপন নির্বাচিত হয়েছেন।

নিয়ম অনুযায়ী, প্রতিটি ইউনিয়নই বিএফইউজেতে দুটি করে নির্বাহী পরিষদ সদস্য পদ পাবে। আরইউজের তিন প্রার্থী এ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এর মধ্যে বদরুল হাসান লিটন ৪২ এবং শরীফ সুমন ৩৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। অপর প্রার্থী আসাদুজ্জামান আসাদ পেয়েছেন ৩২ ভোট।

আরইউজের সদস্যরা বিএফইউজের সভাপতি, মহাসচিব ও কোষাধ্যক্ষ পদেও ভোট দিয়েছেন। ১০টি কেন্দ্রের ভোটের হিসাব করেই এই পদের প্রার্থীরা নির্বাচিত হবেন। রাজশাহীতে সভাপতি পদে ওমর ফারুক ৩৪, আবু জাফর সূর্য ১৬ এবং আবদুল জলিল ভূঁইয়া ১২ ভোট পেয়েছেন। মহাসচিব পদে দীপ আজাদ ৫৭ ও লায়েকুজ্জামান ৩ ভোট পেয়েছেন। আবদুল মজিদ কোন ভোট পাননি। কোষাধ্যক্ষ পদে খায়রুজ্জামান কামাল ৪৯, মোহাম্মদ আবু সাঈদ ৬ এবং নজরুল কবির ৪ ভোট পেয়েছেন।

আরইউজে কেন্দ্রে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক কাজী গিয়াস ও বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান। শ্রম অধিদপ্তরের রাজশাহীর সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমানসহ একটি পর্যবেক্ষক দল নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে