প্রধানমন্ত্রী ভূমিহীন দুস্থ ও অসহায় মানুষের জন্যে আশ্রয়ের ব্যবস্থা করেছেন : জনপ্রশাসন সচিব

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১; সময়: ১০:৩২ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কেএম আলী আজম বলেছেন, দেশের একটি পরিবারও গৃহহীন থাকবে না, ভূমিহীন দুস্থ ও অসহায় মানুষের জন্যে আশ্রয়ের ব্যবস্থা করছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজশাহী জেলার পুঠিয়া তালুকদার গ্রাম আশ্রয়ণ প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের সাথে মতবিনিময়কালে একথা বলেন।

এসময় পুঠিয়া তালুকদার গ্রাম আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৩৮টি পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বরূপ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন ভাবনার অন্তর্ভুক্তিমূলক চেতনা থেকে গ্রহণ করা হয়েছে আশ্রয়ণ প্রকল্প। এ প্রকল্পের মাধ্যমে গৃহায়ণের সাথে কর্মসংস্থান, স্বাস্থ্যসেবা, স্যানিটেশন, শিক্ষা, পেশাভিত্তিক প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন কার্যক্রম যুক্ত হয়েছে। একটি গৃহ কিভাবে সামগ্রিক পারিবারিক কল্যাণে এবং সামাজিক উন্নয়নের প্রধান হাতিয়ার হতে পারে তার অনন্য দৃষ্টান্ত ‘আশ্রয়ণ প্রকল্প’।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে দেশের ভূমিহীন ও ঘরহীন ছিন্নমূল মানুষের জন্য আশ্রয় দেয়ার লক্ষে এ প্রকল্প বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয় সরকার। তারই ধারাবাহিকতায় পুঠিয়ায় সদ্য নির্মিত তালুকদার গ্রামের আশ্রয়ণ প্রকল্পের সুফলভোগীদের সাথে সাক্ষাৎকালে এসব কথা বলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কেএম আলী আজম।

পুঠিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার ড. মো. হুমায়ুন কবীর, পুঠিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জি.এম. হিরা বাচ্চু, পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরুল হাই মোহাম্মদ আনাছ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার ড. মো. হুমায়ুন কবীর জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী গৃহহীন মানুষকে ঘর করে দেওয়া হয়েছে। সুবিধাভোগীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনাদের বাড়ি দিয়েছেন, আপনারা তাকে শিক্ষিত ও সৃজনশীল সন্তান উপহার দেন। এই শিক্ষিত সন্তানরা একদিন দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত ভূমিহীনদের জন্য রাজশাহীতে ১৫৪৫ টি বাড়ি সম্পূর্ণ ত্রুটি মুক্ত। এর মধ্যে পুঠিয়া তালুকদার গ্রাম আশ্রয়ণ প্রকল্পে ৩৮ বাড়ি দেয়া হয়েছে। যারা এখনও ঘর পান নাই তারা তৃতীয় ফেজে ঘর পাবেন বলে জানান তিনি।

পুঠিয়া তালুকদার গ্রাম আশ্রয়ণ প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের মধ্যে রহিমা খাতুন ও আব্দুস সাত্তার বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিনামূল্যে আমাদের বাড়ি দিয়েছে তাতে আমরা অনেক খুশি হয়েছি। সুবিধাভোগীরা প্রধানমন্ত্রীসহ স্থানীয় প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান ও দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া করেন। এছাড়াও তারা আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে যদি বরাদ্দ দেয়া না হত তাহলে আজকে টিনশেড বিল্ডিং এর ঘর পাওয়া সম্ভব হতো না, এমনকি ২.০০ শতক জায়গার মালিকও হতে পারত না।

  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে