রাজশাহী জেলায় প্রশিক্ষণ প্রদানকারী বিভিন্ন অধিদপ্তরের প্রতিনিধিদের সাথে এডভোকেসি সভা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১, ২০২১; সময়: ৭:৩১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : লাইট হাউস কনসোর্টিয়াম এর অধীনে পরিচালিত ড্রাগ এবিউজ রেজিসটেন্ট অ্যান্ড আন্ডারস্ট্যান্ডিং (দাড়াও) প্রকল্পের আওতায় ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের আয়োজনে মঙ্গলবার ৩১ আগষ্ট রাজশাহী জেলায় সরকারী যে সমস্ত অধিদপ্তরের বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করছে সেকল অধিদপ্তরের প্রতিনিধিদের সাথে এডভোকেসি সভা আয়োজন করা হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন দাড়াও প্রকল্পের সুশীল সমাজের প্ল্যাটফর্মের কনভেনর ড. প্রফেসর দিপকেন্দ্রনাথ দাস। সভায় প্রথমেই স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ঢাকা আহছানিয়া মিশনের আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ার প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক রিয়াজ উদ্দীন আহমেদ। সভার মূল উদ্দেশ্য ছিলো রাজশাহী জেলায় সরকারী যে সমস্ত অধিদপÍর বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করছে সেকল অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কারিকুলামে মাদক প্রতিরোধ বিষয় সেশন অর্ন্তভুক্তিকরণ।

সভায় প্রকল্পের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রকল্প ব্যবস্থাপক সুব্রত কুমার পাল এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের দেশব্যাপি চলমান বিভিন্ন মাদকবিরোধী কর্মসুচী নিয়ে উপস্থাপনা করেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগের অতিরিক্ত পরিচালক মো. জাফরউল্লাহ কাজল।

এরপর সভায় মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। মুক্ত আলোচনা পরিচালনা করেন লাইট হাউজের প্রধান নির্বাহী সভায় মো: হারুনুর-অর- রশিদ। সভায় অংশগ্রহন করেন সমাজসেবা অধিদপ্তর, মহিলা বিষয়ক অধিদপÍর, যুব উন্নয়ন অধিদপÍর, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, জনশক্তি রপ্তানি অধিদপ্তর এবং জেলা শিক্ষা অফিসের উপপরিচালক, সহকারী পরিচালক, প্রশিক্ষকগনসহ বিভিন্ন প্রতিনিধিগন।

সভায় বক্তব্য প্রদান করেন মহিলা বিষয়ক অধিপ্তরের উপ-পরিচালক শবনম শিরিন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এটিএম গোলাম মাহাবুব, জনশক্তি বিভাগের সহকারী পরিচালক আব্দুল হান্নান,ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক এ. কে. এম. মুজাহিদুল ইসলাম এবং সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আল ফিরোজ। পার্টনার সংস্থা থেকে সভায় উপস্থিত ছিলেন আপোসের নির্বাহী পরিচালক আবুল বাশার পল্টু।

বক্তারা প্রশিক্ষণ কারিকুলামে মাদকবিরোধী সেশন প্রদানের বিষয়ে তাদের মতামত প্রদান করেন এবং একই সাথে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও দাড়াও প্রকল্প থেকে বিভিন্ন শিক্ষামূলক উপকরণ প্রদানের বিষয়ে বলেন। সবশেষে সভাপতির বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে সভাটি শেষ করা হয়। সভাটি সঞ্চালনা করেন দাড়াও প্রকল্পের এডভোকেসি অফিসার উম্মে জান্নাত।

উল্লেখ্য ইউএসএইড এবং এফসিডিও-এর আর্থিক সহায়তায় কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন প্রোমোটিং অ্যাডভোকেসি অ্যান্ড রাইটস (পার) কর্মসূচির আওতায় রাজশাহী ও নাটোর জেলায় দাড়াও প্রকল্পটি মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রকল্পটি লাইট হাউজ কনর্সোটিয়াম এর সাথে অংশীদার হিসেবে ঢাকা আহ্ছনিয়া মিশন, আসক্ত পুনর্বাসন সংস্থা (আপস) রাজশাহীতে এবং নারী ও শিশু কল্যাণ সোসাইটি নাটোরে কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে