বাগমারায় ধর্ষিত শিশুর পার্শ্বে ভবানীগঞ্জ পৌর মেয়র

প্রকাশিত: আগস্ট ৩, ২০২১; সময়: ১২:৩৯ pm |

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বাগমারা : রাজশাহীর বাগমারায় ধর্ষিত সেই ১০ বছরের শিশুর পার্শ্বে দাঁড়িয়েছেন ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আ.লীগের সহসভাপতি আব্দুল মালেক মন্ডল। তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে মঙ্গলবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান এবং ধর্ষিত শিশুর চিকিৎসার খোঁজখবর নেন এবং ধর্ষকের বিচারের মাধ্যমে কঠিন শাস্তির আশ্বাস দেন।

গত (৩০ জুলাই) শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভার ঋষিপাড়ায় জনৈক ব্যক্তির ১০ বছরের মেয়ে একই পাড়ার লম্পট সুমন চন্দ্র ঋষির মাছ দেয়ার কথা বলে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। ওই সময় তার বাড়িতে কেউ নাথাকার সুযোগে সুমন চন্দ্র ঋষি শিশুটিকে জোরপূর্বক ধর্ষন করেন। শিশুটির চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে লম্পট সুমন চন্দ্র ঋষি পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা ধর্ষিত শিশুটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ওই দিন সন্ধ্যায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ধর্ষক সুমন চন্দ্র ঋষির নামে থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পরই থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সুমন চন্দ্র ঋষিকে আটক করে।

পুলিশের জিজ্ঞাবাদের সুমন চন্দ্র ঋষি শিশুটিকে ধর্ষনের কথা স্বীকার করে। পুলিশ আটককৃত সুমনকে পরের দিনে (৩১ জুলাই) আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেয়।

শিশু ধর্ষনের বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ভবানীগঞ্জ পৌল মেয়র ও উপজেলা আ’লীগের সহসভাপতি আব্দুল মালেক মন্ডল হাসপাতালে যান। সেখানে গিয়ে তিনি ধর্ষিত শিশুর চিকিৎসার খোঁজখবর নেন এবং ধর্ষকের উপযুক্ত বিচারের মাধ্যমে শাস্তির ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন। এছাড়াও শিশুটি যাতে ন্যায্য বিচার পান সেই ব্যবস্থা করে দিবেন বলে তিনি ধর্ষিত শিশুর পরিবারের সদস্যদের জানান।

হাসপাতালে মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডলের সাথে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আসাদুল ইসলাম শামীম মীর, ধর্ষিত শিশুর বাবা, মাসহ পরিবারের সদস্যগন।

  • 193
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে