রাজশাহী বিভাগে এক দিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত

প্রকাশিত: জুলাই ২২, ২০২১; সময়: ৮:৪৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা অনুপাতে করোনা শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ১১ শতাংশ। এটি বিভাগে এখন পর্যন্ত এক দিনে সবচেয়ে বেশি শনাক্তের হার।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনায় মারা গেছেন ৬ জন। এটি চলতি মাসের মধ্যে এক দিনে সবচেয়ে কম মৃত্যু। বৃহস্পতিবার রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নাজমা আক্তার স্বাক্ষরিত প্রতিবেদন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদন সূত্রে জানা গেছে, বুধবার ঈদের দিন সকাল আটটা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল আটটা পর্যন্ত ৮৬১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৪২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ১১ শতাংশ।

আগের ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ১৪৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছিল ৪০২ জনের। পরীক্ষা অনুপাতে শনাক্তের হার ছিল ১৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ। নতুন ২৪২ জন নিয়ে বিভাগে মোট করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৬ হাজার ৬৬৫।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদন সূত্রে আরও জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে সর্বোচ্চ সিরাজগঞ্জে ৯৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া পাবনায় ৬৪ জন, বগুড়ায় ৩৭ জন, রাজশাহীতে ২৭ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৬ জন ও নওগাঁয় ১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নাটোর ও জয়পুরহাটে নমুনা পরীক্ষা হয়নি। ফলে এদিন কেউ এই দুই জেলায় শনাক্তও হয়নি।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনায় ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের মধ্যে বগুড়ার ৩ জন, নাটোরের ২ জন ও রাজশাহীর ১ জন। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছিলেন ৮ জন। নতুন ৬ মৃত্যু নিয়ে বিভাগে করোনায় মোট ১ হাজার ১৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিভাগের আট জেলায় এ পর্যন্ত মোট মৃত্যুর মধ্যে সর্বোচ্চ ৫১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়া জেলায়। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজশাহী জেলায়। এ ছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৩১ জন, নওগাঁয় ১১৪ জন, নাটোরে ৯৯ জন, জয়পুরহাটে ৪৬ জন, সিরাজগঞ্জে ৪৭ জন এবং পাবনায় ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৫৩৩ জন। আগের দিন সুস্থ হয়েছিলেন ৪৯৫ জন। নতুন ৫৩৩ জন নিয়ে বিভাগে মোট সুস্থ হয়েছেন ৫২ হাজার ৭৯৬ জন।

বর্তমানে বিভাগের ৮ জেলায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১০ হাজার ৪৩৬ জন। তাঁদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১০৪ জন। বিভাগে হাসপাতালের বাইরে বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১৩ হাজার ৪৩৩ জন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে