রামেক হাসপাতালের চারটি বুথে টিকা পাবে ১২শো মানুষ

প্রকাশিত: জুলাই ১৪, ২০২১; সময়: ১০:৪৫ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : (মঙ্গলবার ১৩ জুলাই) নগরীতে শুরু হয়েছে মর্ডানা ইঙ্কের কোভিড-১৯ টিকা দেয়া। প্রথম অবস্থায় এই টিকা পেয়েছে নগরীর এক হাজার আবেদনকারী। আজ (বুধবার ১৪ জুলাই) এক হাজার থেকে বেড়ে টিকা দেওয়া হবে ১২শো মানুষকে। সকাল ৮ টা থেকে নারী-পুরুষদের চারটি বুথে টিকাদান চলবে বেলা একটা পর্যন্ত। সকাল আটটায় প্রথম অবস্থায় ৮শো টিকা এনে তা প্রয়োগ করা হবে।

পরবর্তীতে চাহিদা থাকলে আরো ৪শো টিকা নিয়ে আসা হবে এবং আবেদনকারীদের মাঝে প্রয়োগ করা হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্যকর্মকর্তা আঞ্জুমান আরা। তিনি বলেন, মঙ্গলবার প্রথমবারের মত রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে এই মর্ডানা টিকা দেওয়া হয়েছে। চাহিদা বেশি হওয়ায় আমরা আজ আরো ২০০ টিকা বেশি দেওয়ার সিন্ধান্ত নিয়েছি। এখন থেকে শুধু ছুটির দিন বাদে প্রতিদিন রামেক হাসপাতালে নারী-পুরুষ চারটি বুথে এই টিকাদান কর্মসূচি চলবে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. কাইয়ুম তালুকদার জানান, শুধু সিটি কর্পোরেশন এলাকায় মার্ডানার টিকা দেওয়া হবে। আর জেলা পর্যায়ে প্রতিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্র নিদিষ্ট পরিমাণে চলমান রয়েছে সিনোফার্মের টিকার কার্যক্রম। মঙ্গলবার রাজশাহীর ৯ টি উপজেলায় মোট এক হাজার ৬৩৩ জন টিকা নিয়েছেন। সিটি কর্পোরেশনের মতই সকাল আটটা থেকে বেলা একটা পর্যন্ত চলছে এই টিকাদান কর্মসূচি। তিনি জানান, এখন পর্যন্ত টিকার কোন ঘাড়তি নেই। আগামীতেও রাজশাহী জেলায় আরো টিকা আসবে।

এদিকে নতুন করে রাজশাহীতে (রোববার ১১ জুলাই) সন্ধ্যায় পৌচ্ছায় যুক্তরাষ্ট্র থেকে পাওয়া মর্ডানা ইঙ্কের কোভিড-১৯ টিকা। সন্ধ্যায় একটি কাভার্ড ফ্রিজার ভ্যানে ঢাকা থেকে রাজশাহী আসে ১৮ হাজার ডোজ টিকা। পরে সিভিল সার্জন অফিস টিকা গুলো নগরীর হেঁতেখা ইপিআর সেন্টারের ওয়াক ইন কুলারে সংরক্ষণ করেন। স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, ১ হাজার ৮শো ভায়াল টিকা রয়েছে। একেকটি ভায়ালে ১০ জন টিকা নিতে পারবে।

  • 183
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে