রাজশাহীতে কোরবানির চাহিদা মিটবে দেশি গরুতে

প্রকাশিত: জুলাই ৩, ২০২১; সময়: ৯:৩৬ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : কোরবানির ইদকে সামনে রেখে বিগত কয়েক বছর ধরে ভারতীয় গরুর উপর নির্ভরশীল হতে হয় না রাজশাহী অঞ্চলের মানুষের। স্থানীয়ভাবে গরুর খামার গড়ে উঠায় চাহিদা মিটে যায়। এরপরও কোরবানির ইদকে কেন্দ্র করে কিছু ব্যবসায়ী ভারত থেকে গরু নিয়ে আসে। রাজশাহী ও চাঁপাইনবাগঞ্জের সীমান্তপথগুলো একাজে বেশি ব্যবহার হয়।

করোনার কারণে এবার সীমান্ত দিয়ে গরু প্রবেশ করতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত আছে আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর। তবে কোরবানিতে পশু সংকটের কথা বলছেন কেউ কেউ। তবে সুখবর দিচ্ছে প্রাণিসম্পদ অধিদফতর। তাদের মতে, ভারতীয় গরু না আসলেও দেশে কোরবানির পশুর কোনো সংকট হবে না। দেশের খামারিদের কাছে বিপুল পরিমাণ গরু আছে, যা দিয়ে চাহিদা পূরণ করা সম্ভব।

রাজশাহী প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী রাজশাহীতে কোরবানির পশুর চাহিদা আছে ২ লাখ ৭০ হাজার। খামারি পর্যায়ে আছে ৩ লাখ ৮২ হাজার। চাহিদার তুলনায় ১ লাখ ১২ হাজার বেশি পশু আছে। যা দেশের অন্য অঞ্চলের চাহিদার জন্য সরবরাহ করা হবে।

রাজশাহী জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ইসমাইল হক বলেন, ‘গত তিন বছর থেকে আমরা বলে আসছি, ভারত থেকে গরু নিয়ে আসার কোনো প্রয়োজন নেই। আমাদের যে চাহিদা, তা দেশি গরু দিয়ে পূরণ করা সম্ভব। এখন খামারিরা প্রচুর গরু লালন-পালন করছেন।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে