পবার কর্ণহারে পানি নিষ্কাশন নিয়ে ইউপির সদস্য লাঞ্চিত

প্রকাশিত: জুলাই ১, ২০২১; সময়: ৮:৪৫ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর দারুশার কর্ণহারে পানি নিষ্কাশনকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে। এব্যাপারে কর্ণহার থানায় অভিযোগ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আরএমপি কর্ণহার থানার পুলিশের সামনেই এই ঘটনা ঘটলেও পুলিশ নীরব ভূমিকা পালন করে। কর্ণহার থানা অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ নিয়ে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন সচেতনমহল।

জানা গেছে, কয়েকদিনের বৃষ্টিতে দারুশার সরিষাকুড়ি গ্রামের প্রায় বাড়িতে পানি ঢুকে পড়ার উপক্রম হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে হুজুরীপাড়া ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ফারুক হোসেন বাবু কয়েকজনকে নিয়ে মাটি কেটে পানি নামাতে যান। সাথে পুলিশও ছিলেন। পুলিশের সামনে মাটি কাটতে দিবে না বলে বাধা দেন মৃত আজিমুদ্দিনের ছেলে আব্দুল মান্নান। কিছু বুঝে উঠার আগেই আব্দুল মান্নানের পক্ষ নিয়ে হযরতের ছেলে মুকুল হোসেন ও আব্দুল গণির ছেলে শুকুরুদ্দিন পুলিশের সামনেই ইউপি সদস্য বাবুকে মারপিট করে। এর পরেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন কর্ণহার থানার ওসি আনোয়ার আলী তুহিন। ইউপি’র সদস্যকে মারপিট করেছে বলে মুকুল স্বীকারোক্তি দিলেও ওসি কোন পদক্ষেপ নেননি বলে অনেকে অভিযোগ করেন।

এ নিয়ে পানি নিষ্কাশনের পক্ষে এবং বাধাদানকারিদের পক্ষের লোকজন মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছেন। যে কোন সময় সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। এ বিষয়ে হুজুরীপাড়া ইউপির চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা জানান, কয়েকদিনের বৃষ্টিতে এই এলাকার অনেক স্থান তলিয়ে গেছে। বাড়ি-ঘরেও পানি উঠার উপক্রম হয়েছে। দুপুরে পরিষদের সদস্য ফারুক হোসেন বাবু তার এলাকায় পানি নিস্কাশনের জন্য গেলে মারপিটের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি দুঃখজনক। তবে অভিযুক্ত আব্দুল মান্নান বলেন, পাইপ দিয়ে পানি নামালে কোন আপত্তি নেই।

এব্যাপারে কর্ণহার থানা ওসি আনোয়ার আলী তুহিন বলেন, মারামারির খবর শুনে তিনি ঘটনাস্থলে যান। পাশাপাশি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে জানান। তিনি আরো বলেন অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

  • 127
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে