রাজশাহীতে লাইট হাউসের ভার্চুয়াল সেমিনার

প্রকাশিত: জুন ২৬, ২০২১; সময়: ৮:৫৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স (শূন্য সহিষ্ণুতা) নীতি ঘোষণা করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও চোরাচালান রোধে সীমান্তের বিভিন্ন স্থানে টাস্কফোর্স অপারেশন পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে। এছাড়াও মাদক প্রতিরোধে নেয়া হয়েছে নানা উদ্যোগ বলে সেমিনারে উল্লেখ করলেন বক্তারা।

২৬ জুন ২০২১ শনিবার বিকাল ৪টায় অনলাইন জুমের মাধ্যমে দাতা সংস্থা সংস্থা ইউএসএইড এবং এফসিডিও এর অর্থায়নে এবং কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনাল এর কারিগরি সহযোগিতায় লাইট হাউস কনসোর্টিয়াম যথাক্রমে লাইট হাউস, আসক্ত পুর্নবাসন সংস্থা, এনএসকেএস নাটোর এবং ঢাকা আহছানিয়া মিশন এর আয়োজনে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে ভার্চুয়াল এক সেমিনারের আয়োজন করা হয়। সেমিনারে সরকারী, বেসরকারী, গণমাধ্যম ও বিভিন্ন পর্যায়ে নাগরিক সমাজের ৯৩ জন উপস্থিত ছিলেন।

প্রতি বছর মাদকের অপব্যবহার রোধে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২৬ জুন জাতিসংঘ কর্তৃক ঘোষিত মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস পালিত হয়ে আসছে। দিবসটি উদযাপনের অংশ হিসেবে এ বছরের প্রতিপাদ্য তুলে ধরা হয়েছে মাদক বিষয়ে হই সচেতন, বাচাঁই প্রজন্ম, বাচাঁই জীবন।

দিবস উদযাপনের অংশহিসেবে আয়োজিত স্থানীয় সরকার পর্যায়ে মাদকবিরোধী কার্যক্রমে গতিশীলতা আনয়নে তহবিল বরাদ্ধ-শীর্ষক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন লাইট হ্উাস প্রধান নির্বাহী মো. হারুন-অর-রশিদ।

তিনি বলেন, রাজশাহী ও নাটোর জেলার রাজনীতিবিদসহ স্থানীয় সরকারকে সংবেদনশীল করে এবং স্থানীয় সরকারকে প্রভাবিত করার মাধ্যমে মাদকের অপব্যবহারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য নীতিমালা প্রণয়ন ও তহবিল বরাদ্দ বৃদ্ধিকরণে সকল কে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।

দাড়াও প্রজেক্ট ম্যানেজার সুব্রত কুমার পালের সঞ্চালনায় সেমিনারে নাটোরে জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, রাজশাহীর অতিরিক্তি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু আসলাম, নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান, বড়াগ্রাম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারি, দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মহসিন মুধা, পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরুল হাই মোহাম্মদ আনাছ পিএএ, বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রিয়াংকা দেবী পাল, বাসসেস সিনিয়র রিপোর্টার ড. আইনুল হক, সোনার দেশ সম্পাদক আকবারুল হাসান মিল্লাত। কনসোর্টিয়াম অংশীদার প্রতিষ্ঠান আপসের নিবার্হী পরিচালক মো.আবুল বাশার, এনএসকেএস এর পরিচালক ডিএম রনি পারভেজ আলম উপস্থিত সকলকে দন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সেমিনারের এক পর্যায়ে কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনাল এর অ্যাডভোকেসি স্পেশালিস্ট ইফফাত জেরিন সকলের প্রতি শুভেচ্ছা জ্ঞপন করেন।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর রাজশাহী বিভাগের অতিরিক্ত পরিচালক জাফরুল্লাহ কাজলের সভাপতিত্বে সেমিনারে স্থানীয় সরকার পর্যায়ে তহবিল বরাদ্দেল জন্য সকলেল প্রতি আহ্বান জানান। নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, স্থানীয় সরকার পর্যায়ে তহবিল বরাদ্ধে নীতি নির্ধারনী পর্যায়ে ভূমিকা রাখবেন বলে জানান। পাশাপাশি নিজ নিজ অবস্থান এবং মূল্যবোধ থেকে মাদক মোকাবেলায় কাজ করতে হবে বলে আহ্বান জানান।

সেমিনারে বিভিন্ন বক্তার বক্তব্যের আলোকে বক্তব্য রাখেন এবং সকলকে নিয়ে সরকারের মাদক বিরোধী সামাজিক আন্দোলনে যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানান। এসময় প্রবন্ধের আলোকে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন রাসিক ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট মো. নুরুজ্জামান টুকু, আইনজীবি খগেন্দ্র নাথ রায়, সরাক নাটোর সভাপতি রনেন রায়, বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটির সম্পাদক ড. হেমায়োতুল ইসলাম আরিফ, দি হাঙ্গার প্রজেক্টের আঞ্চলিক সমস্বয়কারী মো. মিজানুর রহমান, শিলমারিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন মুকুল, সরদহ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. হাসানুজ্জামান মধু, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রাজশাহীর উপপরিচালক মো. লুৎফর রহমান, নাটোরের সহকারি পরিচালক মো. আলমগীর হোসেন,পার্টনারে পরিচালক আলিমা খাতুন লিমা তাদের মতামত তুলে ধরেন।

বক্তারা বলেন, মাদক প্রতিরোধে প্রজন্মকে বাচাঁতে হলে মাদকের প্রতি ঘৃনা জন্মাতে হবে। যুব সমাজকে মাদক বিরোধী কার্যক্রমে যুক্ত করার মাধ্যমে একটি টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতে ভূমিকা রাখতে পারবে। তাই স্থানীয় সরকার পর্যায়ে পর্যাপ্ত তহবিল বরাদ্ধের দাবিও জানান। মাদকের এই ভয়াল থাবা থেকে বের হতে হলে সরকারের পাশাপাশি নাগরিক সমাজকেও কাজ করার আহ্বান জানান। বর্তমান সমাজে মাদকের মতো ভয়াবহ সমস্যার সঠিক সমাধানের ব্যবস্থা করা প্রয়োজন, এটি না করতে পারলে সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে অন্যায় ও অনিয়মের প্রভাব বৃদ্ধি পেতে থাকবে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে