গোদাগাড়ীতে শিশুকে ধর্ষণ করে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়নি ধর্ষক

প্রকাশিত: জুন ২১, ২০২১; সময়: ৮:০৮ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোদাগাড়ী : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলার পাকড়ি ইউনিয়নের ললিতনগর গ্রামের সুমাইয়া (১১) নামের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় সুমাইয়ার পিতা আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে গোদাগাড়ী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

সুমাইয়ার পিতা আনোয়ার হোসেন জানান, ওইদিন রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত সুমাইয়া বাড়িতে টিভি দেখে। এরপর একাই ঘুমাতে যায়। পরদিন রোববার সকালে ঘুম থেকে উঠে তাঁর বাবা-মা মেয়েকে শয়ন কক্ষে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে তাঁরা বাড়ির পাশের একটি খড়ের পালার নিচে সুমাইয়ার লাশ দেখতে পান।

খবর পেয়ে কাঁকনহাট পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়।

গোদাগাড়ীর কাঁকনহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক মাহমুদুল হাসান বলেন, এ ঘটনায় সুমাইয়ার পরিবার জড়িতদের নাম বলতে পারেনি। তবে আসামীদের চিহ্নিত করে আটকের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ইসলাম বলেন, সুমাইয়া ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে