রাজশাহীর গ্রামাঞ্চলেও ছড়িয়েছে করোনা, সংক্রমণ ৪৩.৪৪%

প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২১; সময়: ৯:৫৯ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : টানা দুইদিন কমার পর রাজশাহীতে ফের বেড়েছে করোনা সংক্রমণ। মঙ্গলবার দুইটি ল্যাবে রাজশাহীর ৩৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ১৬২ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে।

রাতে প্রকাশিত দুইটি পিসিআর ল্যাবের নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে দেখা গেছে, আগের দিনের চেয়ে ১৩ দশমিক ২৭ শতাংশ বেড়ে করোনা শনাক্তের হার হয়েছে ৪৩ দশমিক ৪৪ শতাংশ। যা আগের দিন সোমবার ছিল ৩০ দশমিক ১৭ শতাংশ। এর আগে গত শনিবার রাজশাহীতে শনাক্তের হার ছিল ৫৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ এবং রোববার ৪১ দশমিক ১৮ শতাংশ।

ল্যাব সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাজশাহীর দুইটি ল্যাবে ৬৪৬ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে করোনা পজেটিভ এসেছে ২২৯ জনের।

সূত্রমতে, রাজশাহী ছাড়াও চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১৩৩ নমুনা পরীক্ষা করে ৩২ জনের পজেটিভ আসে। এখানে শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ০৭ শতাংশ। নাটোরের ১৩৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩৫ জনের পজেটিভ আসে। এখানে শনাক্তের হার ২৫ দশমিক ১৮ শতাংশ।

এদিকে, করোনা এখন শুধু শহরেই নয়, বিস্তার ঘটিয়েছে গ্রামাঞ্চলেও। তাই বাড়ছে আক্রান্তের হার, বাড়ছে হাসপাতালে রোগী ভর্তির সংখ্যাও। মঙ্গলবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন করে ভর্তি হয়েছেন আরো ৫৮ জন।

মঙ্গলবার দুপুরে হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী সাংবাদিকদের বলেন, হাসপাতালে শহরের রোগি বেশী ছিল। কয়েকদিন থেকে গ্রামের আক্রান্ত রোগি অনেক আসছে। গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতালে আসা রোগিদের মধ্যে ৪০ শতাংশের বেশী গ্রামের। ফলে বর্তমানে গ্রামেও ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়েছে সংক্রমণ। যা আমাদের নতুন করে ভাবিয়ে তুলেছে। এছাড়াও শুধু বয়স্কদের মধ্যে বেশী ছড়াচ্ছে তা নয়; এখন তরুণদের আক্রান্ত হওয়ার হারও কম নয় বলেন হাসপাতাল প্রধান।

এদিকে গ্রামাঞ্চলে করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়ায় শঙ্কিত স্থানীয় প্রশাসনও। এই সংক্রমন ঠেকাতে বুধবার জরুরী বৈঠক ডেকেছে জেলা প্রশাসন। সে বৈঠকের মাধ্যমে পরবর্তি সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা বললেন জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল।

তিনি জানান, বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় নগরীর সার্কিট হাউজে জরুরী বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেখানে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেয়া হবে। এর পর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে লকডাউন শহরের বাইরে দেয়া হবে কি না।

  • 106
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে