বাঘায় আ.লীগ নেতাকে লাঞ্চিতের ঘটনায় ৫ সদস্যর তদন্ত কমিটি গঠন

প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২১; সময়: ৮:০৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরি কমিটির সভায় দলটির উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি, কাবাতুল্লাহ সরকারের উপর শারীরিক আঘাতের বিষয়সহ সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়েছে। সোমবার (১৪জুন) উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুলের সঞ্চালনায় এ সভা অনুষ্টিত হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সহ-সভাপতি কাবাতুল্লাহ সরকার। সভায় লাঞ্চিতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জ্ঞাপনসহ পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী দুই দিনের মধ্যে উপজেলা কমিটির কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিবেন এই তদন্ত কমিটি। সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরি কমিটির সদস্যগণ।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহিদ সাদিক কবির বলেন, গত শনিবার (১২জুন) মনিগ্রাম বাজার এলাকায় মনিগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল গণি ও সদস্য আফাজ উদ্দিন, আবদুল সামাদ ও শাহিন আলম কৃর্তক কাবাতুল্লাহ সরকার শারীরিকভাবে লাঞ্চিত হয়। ঘটনার পরে আওয়ামী লীগের জেলা কমিটির সদস্য ও সাবেক মেয়র আক্কাছ আলীর বাড়ি থেকে আফাজ উদ্দিনকে আটক করে পুলিশ। ঘটনার প্রেক্ষিতে কাবাতুল্লাহ সরকার বাদি হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

আশরাফুল ইসলাম বাবুল জানান, ঘটনার সাথে সম্পৃক্ততাসহ লাঞ্চিতের বিষয়ে জানার জন্য উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মুন্টুকে আহবায়ক করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, উপজেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহমান, মুঞ্জুরুল ইসলাম, মনিগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, ইউ.পি চেয়ারম্যান, সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে,কাহারো সম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে, সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জেলা কমিটির নিকট প্রতিবেদন পাঠানো হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে