রাজশাহীতে আম পাড়াকে কেন্দ্র করে মারপিটে আহত ৬

প্রকাশিত: জুন ৯, ২০২১; সময়: ৯:৫৫ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীর বড়বনগ্রাম খলিল সরকারের মোড় সেখপাড়া এলাকায় একটি বাগান থেকে আম পাড়াকে কেন্দ্র করে মারামারিতে ছয়জন আহত হয়েছে। এ ব্যাপারে শাহ মখদুম থানায় মামলা হয়েছে।

মামলা থেকে জানা যায়, সোমবার বড়বনগ্রাম মৌজায় নিজেদের ভোগ দখলীয় আম বাগানে নগরীর হাতেম খাঁ কলাবাগান এলাকার রিয়াজ সরদারের ছেলে এ.কে ফরহাদ রাসেল সরদার(৪০)ও আবুল বাশার রাহাত(৩০) এবং দরিখড়বোনা এলাকার মুত আমজাদের ছেলে কামাল হোসেন, (৪৫), বর্ণালীর মোড় এলাকা মৃত সাঈদ এর ছেলে মিজান হোসেন দিপু (২২), আসাম কালোনী এলাকার বজলুর রহমানের ছেলে আল আমিন (২৬) ও কামালকে সাথে করে আম পাড়তে যান।

এসময়ে নগরীর বড়বনগ্রাম এলাকার জুগল ফকিরের ছেলে সামসুল আলম (৪২) ও এজাজুল (৩৭), ভাদু মন্ডলের ছেলে জমসেদ (৫৭), মকসেদ (৫২) হারান (৫৫), জমসেদ আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৮), শফিকুল ইসলাম বিটন(২৭) ও গফুর (৩০), মকবুলের ছেলে গাফফার(৪০) ও শামীম, কালাম এর ছেলে বাবলু(৩৫), মকসেদ এর ছেলে শাউন (৩২) এবং রফিকসহ আরো ৩০-৪০ মিলে লাঠি-সোটা, জিআই পাইপ ও হাসুয়াসহ দেশীয় অন্যান্য অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

এরমধ্যে এ.কে ফরহাদ রাসেল সরদার(৪০)ও আবুল বাশার রাহাত(৩০) অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। এরা উভয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আর বাকী চারজনের মধ্যে দুইজনের হাতের কলারবোন্ড ভেঙ্গে গেছে। তারা চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে বাড়িতে আছেন। এ নিয়ে শাহ্ মখ্দুম থানায় রাসেল ও রাহাতের মামা জনি আহম্মেদ বাদী হয়ে নামীয় ১৩জনসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩০-৪০ নামে মামলা দায়ের করেছেন। এজাহার আরো জানা যায়, তপশিলভূক্ত সম্পত্তি নিয়ে আসামীদের সাথে মামলা চলে আসছে।

এই মামলায় শাহ্ মখ্দুম থানা পুলিশ বড়বনগ্রাম এলাকার জুগল ফকিরের ছেলে সামসুল আলম ও জমসেদ এর ছেলে সাইফুল ইসলাম ও শফিকুল ইসলামকে আটক জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বলে জানান মামলার বাদী জনি। তবে মামলার বিষয়ে শাহ্ মখ্দুম থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল সরকারের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই ঘটনা নিয়ে উভয় পক্ষ মামলা করেছেন। থানা কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে উভয় পক্ষের পাঁচজনকে আটক করেছেন। অন্যান্য আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

  • 106
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে