পুঠিয়ায় ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে মারধর করে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত: মে ২২, ২০২১; সময়: ১০:৫৮ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুঠিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতিসহ তার লোকজন এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে মারপিট করে নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী ওই ছাত্রলীগ নেতাকর্মীসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। থানা পুলিশ অভিযোগটি তদন্তপূর্বক আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান।

ভুক্তভোগী ওষুধ ব্যবসায়ী মহিবুর রহমান বলেন, উপজেলার জিউপাড়া-সরিষাবাড়ি বাজারে তিনি পল্লী চিকিৎসক ও ওষুধের ব্যবসা করেন। সে সুবাদে গত কয়েকমাস আগে প্রতিবেশী আবুল বাশারকে ৭ হাজার টাকা ধার দেন। তাকে ধার পরিশোধ করতে বলা হলে নানা বাহানা শুরু করেন। এরমধ্যে গত ১৪ মে আমার স্ত্রী অসুস্থ হলে তাকে রামেক হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। স্ত্রীর চিকিৎসার অর্থ যোগান দিতে ১৫ মে সন্ধ্যার দিকে তার কাছে আবারও পাওনা টাকা চাওয়া হয়।

তিনি টাকা না দিয়ে উল্টা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শাকিবুর রহমান মিঠুকে ডেকে আনেন। এরপর মিঠু আমার দোকানে এসে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। টাকা দিতে অস্বীকার করায় সে ছাত্রলীগের আরও ৫-৬ নেতাকর্মীকে ডেকে আনে। এরপর তারা রড়-লাঠি দিয়ে আমাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। এক পর্যায়ে মেহেদী নামের একজন আমার ক্যাশ বাক্স থেকে ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। দোকানে মারপিট ও ছিনতায়ের খবর পেয়ে হাসপাতালে আমার স্ত্রী মারা যায়।

এ ঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতি শাকিবুর রহমান মিঠুকে ১নং আসামি করে মোট ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি এজাহার দেয়া হয়েছে। এজাহার দায়েরের ৪ দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ আইনি কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছেন না। এ ব্যাপারে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শাকিবুর রহমান মিঠু বলেন, ওষুধ ব্যবসায়ী মহিবুর টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে আমার একজন কাছের লোক আবুল বাশারকে মারধর করেন। খবর পেয়ে স্থানীয় কিছু ছেলেরা মহিবুরের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন।

কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটেছে। তবে আমি তাকে মারধর করেনি। আর টাকা ছিনিয়ে নেয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি। একটি মহলের চক্রান্তে আমার ওপর মিথ্যা অভিযোগ দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহরাওয়াদী হোসেন বলেন, ওই ভুক্তভোগী থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। আজকালের মধ্যে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে