রাজশাহীতে প্রাইভেটকার চাপায় কাভার্ডভ্যান হেলপার নিহত

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৪, ২০২১; সময়: ১:৩৯ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর পুঠিয়ায় বিএনপি নেতার প্রাইভেটকারের নিচে চাপা পড়ে কাভার্ড ভ্যানের হেলপার নিহত হয়েছে। প্রাইভেটকারের মালিক বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মিজান দুর্ঘটনার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে উপজেলার বানেশ্বর বাজারে একটি তেলপাম্পের সামনে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত কাভার্ড ভ্যানের হেলপারের নাম আবদুল লতিফ (৫৫)। তিনি নোয়াখালি জেলার সেনভাগ থানার ইদলপুর গ্রামের আবদুর রহিমের ছেলে। আর প্রাইভেটকারের মালিক মিজানুর রহমান মিজান তানোর পৌরসভার সাবেক মেয়র ও রাজশাহী জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাত সাড়ে ৮ টার দিকে বানেশ্বর বাজারে রাস্তার পাশে চায়ের দোকানে জটলা বাধে। এ সময় প্রশাসন কাঁচা বাজার এলাকায় জনসমাগম ছত্রভঙ্গ করে লকডাউন বাস্তবায়নে অভিযান চালায়। বানেশ্বর বাজারের সকল চা স্টল গুলো থেকে লোকজন দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ সময় আধা কিলোমিটার দুরে তেলপাম্পের সামনে রাস্তার পার হওয়ার সময় প্রাইভেট কারের ধাক্কায় রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে আব্দুল লতিফ। পরে তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। স্থানীয়দের কথায় দুর্ঘটনার সাথে অভিযানের কোন সম্পর্ক নাই।

পবা হাইওয়ে শিবপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ লুৎফর রহমান জানান, নিহত লতিফ কাভার্ড ভ্যানের হেলপার। তারা কাভার্ড ভ্যান নিয়ে নোয়াখালী ফিরছিলো। বানেশ্বরে একটি চায়ের দোকানে চা খেতে থেমেছিলো। রাস্তা পারাপারের সময় দুর্ঘটনা স্বীকার হন। প্রাইভেট কারটি জব্দ করা হয়েছে।

বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মিজান বলেন, আমি পুঠিয়ার দিকে যাচ্ছিলাম। এসময় বানেশ্বর তেল পাম্পের সামনে একজন দৌড়ে এসে গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে রাস্তার উপর ছিটকে পড়ে আহত হন। পরে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়েছে বলে শুনেছি। এখানে আমার গাড়ির ড্রাইভারের কোন দোষ নেয় বলে দাবি করেন তিনি।

  • 106
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে