রাজশাহীতে বেড়েছে ফলের দাম

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৬, ২০২১; সময়: ১২:৩১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রমজানের প্রথম দিন থেকে শুরু হয়েছে লকডাউন। লকডাউনে গাড়ি বন্ধ থাকা ও রমজানে ফলের চাহিদা বেশি থাকায়
রাজশাহীতে বেড়েছে ফলের দাম। গত বৃহস্পতিবার ইফতারের আগে ফলের দোকানগুলোতে ছিলো ক্রেতাদের ভিড়। অনেকেই রমজানের ইফতার ছাড়াও লকডাউনের কারণে বেশি করে ফল কিনেছেন।

যদিও সারাদিন রোজা শেষে ইফতারির প্লেটে ফল-ফলাদির সমাহার থাকে। রোজা শুরুর আগেই বাজারে বিভিন্ন ফলের দাম বেড়ে যায়। তবে প্রতিবারের মত এবারও ফল বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে। সরবরাহ কম থাকায় দাম বেড়েছে বলে জানিয়েছেন ফল ব্যবসায়ীরা। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে নগরীর বাজারগুলোতে দেখা গেছে, অন্যান্য পণ্যের মত বিভিন্ন রকমারি ফলের দোকান গুলোতে রমজানের জন্যে কেনা-কাটা ক্রেতাদের।

সাহেববাজারের ফল ব্যবসায়ী হৃদয় ইসলাম জানান, ফলের দাম কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা বেড়েছে। কাঁচামাল তাই দামে কম-বেশি হয়। অন্য দেশ থেকে ফল আমদানি করতে হয়। এছাড়া লকডাউন চলছে, তাই সরবরাহ কম। এ কারণেই মূলত ফলের দাম বেড়ে গেছে।

বিভিন্ন খুচরা ফলের বাজারে, খেজুর ১৫০ থেকে ৮০০ টাকা, আঙ্গুর ২৫০ টাকা, আপেল মানভেদে ১৮০ থেকে ২২০ টাকা, কমলা ১৬০ থেকে ২০০ টাকা, মাল্টা প্রকার ভেদে ১০০ থেকে ১৭০ টাকা, বেদানা ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা, নাসপাতি ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা, ১০০ গ্রাম চেরিফল ২৫ টাকা, আতা ২০০ টাকা, বাঙ্গি ৪০ টাকা পিস।

পাশাপাশি দেশীয় ফলও দেখা যাচ্ছে ফলের বাজারে। আনারস ৮০ টাকা কেজি, তরমুজ ৩৫ টাকা কেজি। এছাড়াও, চিনি ৬২ থেকে ৭০ টাকা, আঁখের গুড় ৯০ টাকা, লেবু ৪০ টাকা হালি। ক্রেতা হাবিস ইসলাম জানান, রমজানে সময় পণ্যের দাম বাড়ে, আজ নতুন কিছু না।

  • 24
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে