লকডাউনে দোকান বন্ধ করতে বলায় খুন হন মিজান

প্রকাশিত: এপ্রিল ১১, ২০২১; সময়: ১০:৫২ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে মিজানুর রহমান মিজান নামের এক আনসার সদস্য খুন হয়েছেন। স্বজনদের দাবি, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটানো হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাধব সরকারকে গ্রেপ্তারে করেছে পুলিশ।

নিহত আনসার সদস্য মিজানুর রহমান মিজান

পুলিশ জানায়, সন্ধ্যায় নগরীর হেতমখাঁ সবজি পাড়া বিদ্যুৎ অফিসের সামনে একটি চায়ের দোকানে আড্ডা দিচ্ছিলেন নিহত মিজানুর রহমান মিজান, মাধবসহ তাদের বেশ কয়েকজন বন্ধু। লকডাউনের জন্য দোকানের লাইট বন্ধ করতে বলেন মিজানুর রহমান। এতে বাধা দেন মাধব। এ সময় কথা কাটাকাটি হলে অন্যবন্ধুরা তাদের সরিয়ে দেন। তবে এর কিছুক্ষণর পর বাড়ি থেকে ছুরি নিয়ে এসে মিজানকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন মাধব। এ সময় স্থানীয়রা দ্রুত গুরুতর আহত মিজানকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা বলেন, তারা এখানে আড্ডা দিচ্ছিলেন। মিজান এসে বলেন, এখন লকডাউন চলছে। তোমরা চলে যাও। মূলত এই কথা থেকেই গণ্ডগোল শুরু হয়।

পরে স্থানীয়রা মাধবের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে ও অভিযুক্তকে দ্রুত বিচারের দাবি জানান। এ সময় তারা মাধবের বাড়িতে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপও করে। এ ঘটনার পর উত্তেজনা ঠেকাতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তবে এ নিয়ে কথা বলেনি পুলিশ। নিহত মিজানুর রহমান মিজান আনসার বাহিনীর হ্যান্ডবল টিমের জুনিয়ার কোচ ছিলেন এবং সখিপুর সদর দপ্তরে কর্মরত।

  • 407
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে