রাজশাহীতে দোকান খোলার দাবিতে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত: এপ্রিল ৭, ২০২১; সময়: ৯:৩৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে সরকারঘোষিত বিধিনিষেধের তৃতীয় দিনেও বিক্ষোভ করেছেন ব্যবসায়ীরা। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে প্রায় আধা ঘণ্টা নগরের সাহেববাজার এলাকায় কাপড়পট্টির ব্যবসায়ীরা দোকান খোলার দাবিতে বিক্ষোভ করেন। এর আগে ৫ এপ্রিল দোকানপাট খুলে দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছিলেন রাজশাহীর ব্যবসায়ী নেতাসহ কর্মচারী-দোকানিরা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে এটা লকডাউন নয়, কঠোর বিধিনিষেধ। কিন্তু সরকারি অফিস–আদালতসহ সবকিছু খোলা আছে। গণপরিবহনও চালু হয়ে গেছে। তাহলে শুধু দোকানপাট কেন বন্ধ থাকবে। গত বছর করোনায় তাঁরা অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন।

এবার ঈদ সামনে রেখে তাঁরা দোকানে মালপত্র তুলেছেন। এবারও দোকানপাট বন্ধ রাখলে তাঁদের একেবারে পথে বসতে হবে। তাঁরা দোকান খুলে ব্যবসা চালাতে চান। আজ তাঁরা অনেকেই দোকান খুলেছিলেন। সকালে ম্যাজিস্ট্রেট এসে দোকান বন্ধ করার কথা বলেন।

রাজশাহী বস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি অশোক কুমার সাহা বলেন, ম্যাজিস্ট্রেট এসে দোকান বন্ধ করতে বলেন। দোকানিদের জরিমানা করতে চান। তাঁরা জরিমানা না করার জন্য অনুরোধ করেন। পরে ম্যাজিস্ট্রেট চলে যান। এই খবরে কয়েকজন দোকান কর্মচারী ও ব্যবসায়ী রাস্তায় নেমে অবরোধ করেন। কেউ শুয়ে পড়েন।

পরে তাঁদের বুঝিয়ে রাস্তা অবরোধ ছাড়ানো হয়। দেশের সবকিছু চালু আছে। সরকার শুধু দোকান বন্ধ রাখতে বলছেন। এটা ন্যায্য হতে পারে না। হয় লকডাউনে সবকিছু বন্ধ থাকবে, নইলে কিছুই বন্ধ থাকবে না।

রাজশাহী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রিয়াংকা দাস বলেন, সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক দোকানপাটসহ শপিং মল বন্ধ থাকবে, সেটাই তাঁরা জানাতে গিয়েছিলেন। সেখানে পরে কিছু হয়েছে কি না, তা তাঁর জানা নেই।

  • 143
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে