রাজশাহীর অটোরিকশা গুলোতে নেই সামাজিক দূরত্ব

প্রকাশিত: এপ্রিল ৪, ২০২১; সময়: ১০:৫৩ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : সামাজিক দূরত্ব মানার বালাই নেই অটোরিকশাগুলোতে। রাজশাহী নগরীতে পাশাপাশি বসেই অটোরিকশায় চড়ে গন্তব্যে যাচ্ছেন যাত্রীরা। এসময় যাত্রিদের মাস্ক পরাতেও অনীহা দেখা গেছে। শনিবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে নগরীর সাহেববাজার, জিরোপয়েন্ট, লক্ষ্মীপুর, কোর্ট, গোরহাঙ্গা রেলগেট, ভদ্রা, তালাইমারী এলাকায় চলাচলরত
অটোরিকশাগুলোতে পাশাপাশি বসে যাত্রিদের ভ্রমণ করতে দেখা গেছে ।

অটোরিকশা চালক সেলিম জানান- এমনিতেই লোকজন কম। তার উপরে অটোরিকশা বেশি। যাত্রিদের মাস্ক পরার কথা বলি। কেউ শোনে, কেউ শুনছেন না। পাশাপাশি বসার বিষয়ে তিনি বলেন, অটোতে এমনিই ছোট জায়গা। মোট চারজন বসার ব্যবস্থা রয়েছে। করোনার কারণে অটোতে দুইজন থাকলে মানুষ উঠতে চায় না। সারাদিন দুই একজনকে তুলে ভাড়া নিয়ে যাওয়া-আশা করলে জমার টাকা তোলাই অসম্ভব হয়ে যাবে।

তার উপরে নিজের কাজের পারিশ্রমিক তো আছেই। যাত্রী রবিউল ইসলাম বলেন, সচেতনতা নিজস্ব ব্যাপার। সুস্থ থাকার জন্য নিজেকেই চেষ্টা করতে হবে। করোনা রোধে স্বাস্থ্যবিধি মানার বিকল্প নেই। প্রতিদিনই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। স্বাস্থ্যবিধির বিষয়ে আরও সচেতন হতে হবে সবাই।

ভদ্রা বাস স্ট্যান্ডে যাত্রী আব্দুর রহিম বলেন, সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক না পরলে জরিমানা করা উচিত। আর যাদের পকেটে মাস্ক তাদের বেশি জরিমানা করা দরকার। প্রতিটি যানবাহনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখা ও তা যাত্রীদের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে হবে। নগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, সচেতনতার জন্য মাস্ক বিতরণ ও প্রচার চালানো হচ্ছে। নির্দেশনা আসলে কঠোর হবে প্রশাসন।

  • 268
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে