মোহনপুরে অস্ত্রের মহড়া দিয়ে জমি দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত: মার্চ ২৮, ২০২১; সময়: ৯:৪৯ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার নওগাঁ গ্রামে দেশীয় অস্ত্রের মহড়া দেখিয়ে জমি দখল করার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার রাতে জমিটির স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। বুধবার থেকে সেখানে অবৈধভাবে নির্মাণ কাজ চালাচ্ছেন স্থানীয় সন্ত্রাসী বাহিনী।

এব্যাপারে মোহনপুরে থানায় মৃত ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে গোলাম মোস্তফা, মকসেদ, মোজাম্মেল, মৃত আশকান আলীর ছেলে আসরাফ হোসেন, জাফর আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়া হয়। তবে পুলিশ একাধীকবার ঘটনাস্থলে গিয়েও নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে পারেনি।

ভুক্তভোগি ও জমির প্রকৃত মালিক আছিয়া বিবি, আহসান হাবির, আনোয়ারা বিবি বলেন, তারা খতিয়ান অনুযায়ী প্রায় ৫০ বছর থেকে জমিতে দখল থেকে আম বাগান করে রেখেছিলাম। কিন্তু আসামীরা আমাদের আম বাগানে রাতে ও দিনে দেশীয় অস্ত্রের মহড়া দেখিয়ে ইট দিয়ে পাকা স্থাপনা নির্মাণ করে যাচ্ছে।

থানায় জানানোর পর মোহনপুর থানা পুলিশ একাধীকবার আমাদের সহযোগিতার পাশে দাঁড়ায় ও আসামীদের নির্মাণ কাজ চালাতে নিষেধ করে। কিন্তু কাজ বন্ধ রাখছে না। জবরদখলকারিরা রাতের আঁধারে নির্মাণ কাজ করছে। দিনে হাসুয়া, হাতুরী, সাবল, বল্লম দেখিয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তারা আসামীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবির জানাচ্ছি।

এলাকাবাসিরা জানান, ইতি পূর্বে গোলাম মোস্তফা এমনভাবে অন্যের জমি জোর পূর্বক দখল করে থাকে। তার পরিবারের মহিলা সদস্যের দাপটে সে জায়গা সহজে দখল করে থাকে, এতে অসহায় হয়ে পড়ে প্রকৃত মালিকরা। তার ভাবী সেলিনা খাতুন বর্তমানে কেশরহাট পৌরসভার সংরক্ষিত কাউন্সিলর হওয়ায় সে আরো ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। জমি দখলে বেপোরোয়া হয়ে উঠেছে। এলাকাতে তারা ভূমি দস্যু হিসেবে পরিচিত।

মোহনপুর থানার ওসি তৌহিদুল ইসলাম জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে একাধীকবার পুলিশ পাঠিয়ে আসামীদের নির্মাণ কাজ বন্ধ করা হলেও তা অমান্য করে কৌশলে নির্মাণ কাজ করে যাচ্ছে। আদালতের আদেশ পাওয়ার পর তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  • 112
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে