বাগমারায় নানা আয়োজনে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপিত

প্রকাশিত: মার্চ ২৬, ২০২১; সময়: ৪:৫৬ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগমারা : রাজশাহীর বাগমারায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপিত হয়েছে। শক্রবার সকাল ৬ টায় ৫০ বার তপোতধ্বনীর মধ্যে দিয়ে দিবসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। পরে উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে উপজেলা প্রশাসন, পরিষদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে এক মিনিট নীরবতা পালন করে সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া করা হয়।

দিবসটি যথাযথ ভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে নানান কর্মসূচী গ্রহণ করেন উপজেলা প্রশাসন সহ উপজেলা আওয়ামী লীগ। এদিকে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভার আয়োজন করেন উপজেলা প্রশাসন। বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর কমপ্লেক্সের সালেহা ইমারত মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন রাজশাহী-৪(বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

প্রধান অতিথি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেন, স্বাধীন বাংলার পথচলা শুরু হয় মার্চ মাস থেকেই। ২৬ মার্চ বাঙ্গালী জাতির জন্য সংগ্রামের দিন। স্বাধীন বাংলার পথপ্রদর্শক হিসেবে যিনি ছিলেন শ্রেষ্ঠ তাকে আজও ভুলেনি জাতি। বাঙ্গালীর জন্য আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। দেশবাসীকে যিনি পরাধিনতার শৃংখল থেকে রক্ষা করে গেছেন। দেশ যখন শেখ মুজিবের নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছিলেন সে সময় স্বাধীনতা বিরোধী চক্র জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান সহ তাঁর পরিবারের সদস্যদের নির্মম ভাবে হত্যা করে।

বাঙ্গালী জাতি আজ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করছে। স্বাধীনতার এই সুবর্ণ জয়ন্তীতে সবাইকে শপথ নিতে হবে জাতির জনক যে স্বপ্ন নিয়ে দেশবাসীর কল্যাণে কাজ করে গেছেন তা ধরে রাখতে হবে। তাঁর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে সবাইকে কাজ করতে হবে। নতুন প্রজন্মের মাঝে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ তুলে ধরার পাশাপাশি তাদেরকে জানাতে হবে স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস।

একাডেমিক সুপারভাইজার আব্দুল মুমীতের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার, বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাক আহম্মেদ, কৃষি অফিসার রাজিবুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম, হীমেন্দ্রনাথ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু, মরিয়ম বেগম, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দীন সুরুজ, দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বেবী, উপজেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহানারা বেগম, শ্রীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক জিল্লুর রহমান প্রমুখ।

এ সময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান, বীর মুক্তিযোদ্ধাগন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং আ’লীগ ও অংগ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে সকাল ৭ টায় উপজেলা আ’লীগের দলীয় কার্যালয় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর কমপ্লেক্সে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভা এবং শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে