বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করলেন রাসিক মেয়র ও কাউন্সিলরবৃন্দ

প্রকাশিত: মার্চ ১৭, ২০২১; সময়: ১:২৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : যথাযোগ্য মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করেছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। দিবসটি উপলক্ষ্যে বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় নগরভবন চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন ও কাউন্সিলরবৃন্দ।

এরপর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এবং কর্মচারী ইউনিয়নের পক্ষ থেকে পৃথকভাবে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান সহ জাতীয় চার নেতা ও মহান মুুক্তিযুদ্ধে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন সোনাদিঘী জামে মসজিদের পেশ ইমাম ক্বারী মোঃ মামুনুর রশীদ।

এ সময় কাউন্সিলরবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-২ ও ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, পুষ্পস্তবক অর্পণ উপ-কমিটির আহ্বায়ক ও ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন, ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামাল হোসেন, ৪ নম্বর রুহুল আমিন টুনু, ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান, ১০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্বাস আলী সরদার,

১৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুস সোবহান লিটন, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহম্মেদ, ২০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম, ২৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তরিকুল আলম পল্টু, ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আকতারুজ্জামান কোয়েল, ২৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ারুল আমিন আজব, ২৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আশরাফুল হাসান বাচ্চু, ২৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাসুদ রানা, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মাজেদা বেগম, উম্মে সালমা, মুসলিমা বেগম বেলী, আয়েশা খাতুন, লাইলি বেগম, নাদিরা বেগম।

কর্মকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত সচিব আলমগীর কবির, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সমর কুমার পাল, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আবু সালেহ মোঃ নুর-ই-সাঈদ, প্রধান প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম, বাজেট কাম হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম খান ও বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

দিবসের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল সূর্যোদয়ের সাথে সাথে নগর ভবন ও সকল ওয়ার্ড কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। বাদ জোহর সোনাদিঘি মসজিদ, নগর ভবন ওয়াক্তিয়া মসজিদ সহ সকল মসজিদে দোয়া এবং সকল ধর্মীয় উপসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া বিকেলে নগর ভবনে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা , সন্ধ্যায় আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আতশবাজির আয়োজন করা হয়েছে।

 

  • 23
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে