রাজশাহীতে আলু লুটের অভিযোগে আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত: মার্চ ১৫, ২০২১; সময়: ১:৩৯ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর তানোরে অন্যের জমি থেকে আলু লুটের অভিযোগে আদালতে মামলা করা হয়েছে। উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুস সালামসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে জমির মালিক গিয়াস উদ্দিন এ মামলা করেন। গিয়াসের বাড়ি নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার বিরোপাড়া গ্রামে।

মামলার এজাহার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬ ও ২৭ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী জেলার তানোর উপজেলার চাঁন্দুড়িয়া ইউপির রাতৈল দক্ষিণপাড়া গ্রামে অন্যের জমি থেকে জোরপূর্বক আলু তুলে নেন তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুস সালামসহ তার ভাই মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক।

রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার ও ক্ষমতার দাপটে তিন বিঘা জমির আলু ভাড়াটিয়া লোকজন দিয়ে জোরপূর্বক তুলে নেন তারা। তাদের সহযোগিতা করেন রাতৈল দক্ষিণপাড়া গ্রামের সৈয়দ আলী, কাওসার, রাব্বানী, মিলন, সামাদ, রাহেমা, তহমিনা ও সাদেকসহ ১২ জন নামধারী ব্যক্তি।

জমির মালিক গিয়াস উদ্দিন জানান, উপজেলার চাঁন্দুড়িয়া ইউপির একতারপুর মৌজার আরএস ৪৫৯, ৪৭৯ ও ৪৮০ নম্বর দাগের ১০৩ শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় সূত্রে তিনি মালিক। তার বাড়ি নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার বিরোপাড়া গ্রামে। পিতা জবির উদ্দিন মন্ডলের পুত্র তিনি। এসব সম্পত্তি প্রায় দুই যুগ ধরে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল করে আসছেন।

তিনি আরও জানান, তার নামে খারিজ ও হালনাগাদ খাজনা পরিশোধ আছে। কিন্তু কোনো কাগজপত্র ছাড়াই আব্দুস সালাম ও মোস্তফা আহমেদ সম্পত্তির হিস্যা দাবি করে গেল বুধবার তার ক্ষেত থেকে আলু উত্তোলন করেছেন। বাধা দিতে গেলে মালিকপক্ষের লোকজনকে হত্যার হুমকি দেয়ন তারা।

এ ব্যাপারে তানোর থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ অপারগতা প্রকাশ করে আদালতে মামলা করার পরামর্শ দেন। যার প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট আদালতে এ মামলা করা হয় বলে জানান ভুক্তভোগী।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুস সালাম ও মোস্তাক জানান, এসব আলু তারাই রোপন করেছিলেন। অন্যের জমিতে কেন আলু রোপন করেছেন- জানতে চাইলে তারা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

  • 204
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে