বাগমারায় দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ১০ জন আহত

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১; সময়: ৪:৩৪ pm |

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বাগমারা: রাজশাহীর বাগমারায় আলুর ক্ষেতে পানি যাওয়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেন, রনসীবাড়ি গ্রামের ফজলুর রহমান (৪৮), খাইরুল ইসলাম (১৮), সুরবজান বেওয়া (৭০), সাইদুর রহমান (৪৬) ও মোফাজ্জল হোসেন (১৭)। ওই ঘটনার পর থেকেই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। খবর পেয়ে বাগমারা থানার ও ঝিকরা ক্যাম্পের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেছে বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ঝিকরা ইউনিয়নের রনসীবাড়ি গ্রামের ফজলুর রহমান তার জমিতে পানি সেচের সময় পার্শ্বের জমির মালিক সাইদুর রহমানের আলু ক্ষেতে পানি যায়। বিষয়টি জানতে পেরে বৃহস্পতিবার দুপুরে সাইদুর রহমান ও তার ছেলে মোফাজ্জল হোসেন আলুর জমিতে যায় এবং ফজরুর রহমানকে আলু ক্ষেতে পানি দেয়ার কারন জানতে চাই।

ফজলুর রহমান বাঁধ ভেঙ্গে আলু ক্ষেতে পানি যাওয়ার বিষয়টি সাইদুর রহমানকে জানাই। আলু ক্ষেতের ক্ষতি হবে ভেবে সাইদুর রহমান পানি যাওয়ার বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি। ঘটনাটি নিয়ে ফজলুর রহমান ও সাইদুর রহমানের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে বেঁধে যায়। সংঘর্ষের খবর পেয়ে দু’পক্ষের লোকজন ঘটনাস্থলে আসে এবং দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ১০ জন আহত হয়। খবর পেয়ে বাগমারা থানা ও ঝিকরা ক্যাম্পের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে এবং স্থানীয়দের সহযোগীতায় আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। আহত খাইরুল ইসলামের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি মোস্তাক আহম্মেদ জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশের একটি দলকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছিল। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে। থানায় লিখিত অভিযোগ পেলেই সংঘর্ষের সাথে সম্পৃক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে