রাজশাহীতে নৌকার নির্বাচনী সভায় বোমা বিস্ফোরণ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৭, ২০২১; সময়: ১২:০৩ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট পৌরসভার একটি নির্বাচনী সভায় হাত বোমার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. শহিদুজ্জামান শহিদের নির্বাচনী সভায় একাধারে তিনটি হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের হরিদাগাছি গ্রামে অনুষ্ঠিত সভায় এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। আগামী ৩০ জানুয়ারি এ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যা ৭টার দিকে নির্বাচনী সভা শুরু হয়। প্রার্থী শহিদুজ্জামান শহিদের বক্তব্যের পর প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান শুরু করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. আব্দুস সালাম। মঞ্চের সামনে সারিবদ্ধ চেয়ারে বসে বক্তব্য শুনছিলেন ভোটাররা।

মহিলা ভোটাররা ছিলেন সামনের সারিতে। এর ঠিক মিনিট দুয়েকের মধ্যে নির্বাচনী সভার মঞ্চের পেছনে একাধারে ৩টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটে। এতে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন মহিলাসহ উপস্থিত জনতা। রাজনৈতিক কর্মী, নারী-পুরুষ সহ উপস্থিত সবাই আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে ছুটাছুটি শুরু করেন। তবে কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী রাসেল সরকার বলেন, মঞ্চের সামনে বসে বক্তব্য শুনছিলাম হঠাৎ বিকট শব্দে ককটেল ফুটে উঠলো। প্রথমটার পরে সময় না নিয়ে আরও দুইটা ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটে। এখনও হাত পা কাঁপছে। আতঙ্ক কাটছেই না, ঘোরের মধ্যে আছি মনে হচ্ছে।

আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী শহিদুজ্জামান শহীদ বলেন, আমার নির্বাচনী সভায় ককটেল বিস্ফোরণ করেছে। জামায়াত-বিএনপির প্রার্থীর এলাকায় এটি ঘটেছে। এখানে তাদের ভূমিকা রয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা নেবেন বলে আশা করছি।

মোহনপুর থানার ওসি তৌহিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। এ সময় ঘটনাস্থলে বিস্ফোরণ হওয়ার আলামত পাওয়া গেছে। কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। তবে কে বা কারা এ হামলা করেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। জড়িতদের আটকের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানান তিনি।

  • 204
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে