তানোরে কলমা ইউপিতে চেয়ারম্যান প্রার্থী হচ্ছে আ’লীগ নেতা লিটন

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১, ২০২১; সময়: ৯:৫৯ pm |

সাইদ সাজু, তানোর : রাজশাহীর তানোর উপজেলার কলমা ইউনিয়নে (ইউপি) তে চেয়ারম্যান প্রার্থী হবেন পুরোনো আ’লীগ নেতা ও নব্বী দশকের রাজপথের লড়াকু সৈনিক লিটন। তাকে ঘিরে কলমা ইউপি এলাকায় শুরু হয়ে বিভিন্ন আলোচনা ও গুনজন।

তিনি কলমা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার ঘোষনা দিয়ে লিপ্লেট ও পোষ্টার ফেষ্টুন লাগিয়ে এলাকা গনসংযোগ ও শুভেচ্ছা বিনিময় শুরু করেছেন। ফলে, কলমা ইউপি এলাকায় লিটনকে নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা।

কলমা ইউপি এলাকার সাধারণ জনগন বলছেন, মোসাদ্দেক হোসেন লিটন চৌধুরী নব্বীয়ের দশকে সামনের কাতারে থেকে লড়াই সংগ্রাম করেছেন। তানোর উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম সাফিউল ইসলামের হাত ধরে ছাত্রলীগ রাজনীতিতে প্রবেশ করা এই সাবেক ছাত্র নেতা জনগনের দ্বারে দ্বারে গিয়ে আ’লীগকে শক্তিশালী করতে ব্যাপক ভুমিকা রেখেছিলেন।

তার রাজনৈতিক দুরদর্শিতার কারনে তাকে কলমা ইউনিয়ন আ’লীগের প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হলে তিনি একটানা ২০বছর প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। ৪ দলীয় জোট সরকারের আমলে বিভিন্ন ভাবে তাকে ব্যাপক হয়রানিসহ মামলা হামলা দিয়ে তাকে এলাকা ছাড়া করা হলেও তিনি বংশীয় আদর্শের কারনেই আ’লীগ ছাড়েননি।

২০০৯ সালে আ’লীগ ক্ষমতায় আসার পর তাকে কলমা ইউনিয়ন আ’লীগের প্রচার সম্পাদকোর পদ থেকে সরিয়ে কোন পদেই রাখা হয়নি। তবে, গত প্রায় ১২বছর ধরে তিলে তিলে কলমা ইউপি এলাকার জনসাধারণসহ নেতা-কর্মিদের সাথে সুসম্পর্ক ধরে রাখার পাশাপাশি বিভিন্ন নির্বাচনে ব্যাপক ভুমিকা রেখেছেন তিনি।

সেই আক্ষেপের কারনে দীর্ঘদিন থেকে রাজনীতির মাঠ থেকে দুরে সরে থাকলেও দলের বিভিন্ন অভ্যান্তরীন কারনে আবারো রাজনীতির মাঠে নিজেকে সক্রিয় করার পাশাপাশি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের ঘোষনা দিয়ে এলাকায় ব্যাপক আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুর সৃষ্টি করেছেন সংসদ সদস্য আলহাজ ওমর ফারুক চৌধুরীর চাচা ভাই চৌরখৈর গ্রামের মৃত তোফাজ্জুল হক চৌধুরীর ছেলে মোসাদ্দেক হোসেন লিটন চৌধুরী। ইতমধ্যে তিনি মানবিক ও খাদ্য সহায়তাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডে ব্যাপক ভুমিকা রাখার পাশাপাশি ব্যাক্তি পর্যায়ে আর্থিক অনুদান প্রদান করে ব্যাপক জনপ্রিয়তার অর্জন করতে সক্ষম হয়েছেন।

প্রচার প্রচারণায় ও গণসংযোগের মাধ্যমে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরে এলাকায় গিয়ে ভোটারসহ জনসাধারনের দৃস্টি আকর্ষণ এবং আলোচনায় উঠে এসেছেন এই তরুন ও উদীয়মান নেতা লিটন চৌধুরী। তাকে ঘিরে আলোচনায় উঠে আসতে শুরু করেছে তার বংশীয় পরিচয়, রাজনৈতিক দুরদর্শিতা ও আর্দশিক গুনসহ তরুণ নেতৃত্বের ভুমিকার কথা।

রাজনীতিতে তার ভুমিকার বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার সর্তে একাধীক নেতা-কর্মিরা বলছেন, মোসাদ্দেক হোসেন লিটন একজন আর্দশবান ব্যাক্তি ও সুনামধন্য পরিবারের সন্তান। তারা আরো বলছেন, এক সময় আ’লীগ করার মত লোক খুজে পাওয়া যেতনা, ওই সময় লিটন দীরদর্পে আ’লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় থেকে আ’লীগকে শক্তিশালী করতে ব্যাপক ভুমিকা রেখেছিলেন। কিন্তুু রহস্যজনক কারনে তাকে দলের মাঠ থেকে দুরে সরিয়ে রাখা হয়েছিলো।

এলাকাবাসীসহ নেতা-কর্মিরা বলছেন, কলমা ইউপি এলাকায় অন্যদের থেকে অনেক বেশী জনপ্রিয়। নেতা ও কর্মিসহ সকলের কাছে তার গ্রহন যোগ্যতা অনেক বেশী। কলমা ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে লিটনকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি তুলেছেন তারা।

এবিষয়ে মোসাদ্দেক হোসেন লিটন চৌধুরী বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আ’লীগের রাজনীতি করে আসছি, অনেক ত্যাগ ও ভোগান্তির স্বীকার হয়েও জনগনের পাশে আছি, ভোটারদের মানষিকতা ও তৃণমুলের মতামতের ভিত্তিত্বে মনোনয়ন দেয়া হলে তার মনোনয়ন নিশ্চিত বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, সংসদ সদস্য আলহাজ ওমর ফারুক চৌধুরীর হাতকে শক্তি শালী ও এলাকার উন্নয়নের জন্য চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করার ঘোষনা দিয়েছি। তবে, দল যাকে মনোনয়ন দিবে তার পক্ষেই কাজ করবেন বলেও জানান তিনি।

  • 62
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে