রাজশাহীতে নীতিমালা না মেনে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন নির্মাণ

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৩, ২০২০; সময়: ৫:৪০ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীতে ইমারত নির্মাণ নীতিমালা না মেনে ঝুঁকিপূর্ণভাবে চারতলা একটি ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। মহানগরীর হড়গ্রাম বাজার পালপাড়া এলাকায় ভবনটি নির্মাণ করছেন অসিম কুমার দাস নামে এক ব্যক্তি।

এ ঘটনায় রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষে (আরডিএ) লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। অসিমের প্রতিবেশী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. দীনবন্ধু পাল গত ২৯ সেপ্টেম্বর এ অভিযোগ করেছেন। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আরডিএ অসিমকে একটি কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে। পাশাপাশি নির্মাণ কাজ বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মহানগরীর রাজপাড়া থানার ওসিকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আরডিএ কর্তৃপক্ষের কাছে দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, হড়গ্রাম বাজার পালপাড়া এলাকার আরএস-৪২৩১ নম্বর মৌজায় চারতলা ওই ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এ জন্য আরডিএ থেকে কোন নকশার অনুমোদন নেয়া হয়নি। চারতলা এ ভবনের পশ্চিম দিকে অভিযোগকারী ড. দীনবন্ধু পালের ফাঁকা জায়গা রয়েছে। অসিম কুমার দাস ভবন নির্মাণের সময় নিচে দুই ফুট জায়গা ছেড়েছেন। কিন্তু উপরের ছাদ চলে এসেছে দীনবন্ধু পালের জায়গার দিকে।

এদিকে অভিযোগ পেয়ে আরডিএ কর্তৃপক্ষের ইমারত নির্মাণ কমিটির পক্ষে অথারাইজড অফিসার আবুল কালাম আজাদ গত ৭ অক্টোবর অসিম কুমার দাসকে একটি কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, অনুমোদন ছাড়াই ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে। এ অবস্থায় কেন ভেঙ্গে ফেলা হবে না তা আগামী সাত দিনের মধ্যে আরডিএকে জানাতে হবে। এছাড়া নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখতে হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে গ্রহণযোগ্য জবাব দেয়া না হলে আর কোনো বক্তব্য না শুনেই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অথারাইজড অফিসার আবুল কালাম আজাদ বলেন, আগামী ২৮ অক্টোবর উভয়পক্ষকে ডাকা হয়েছে। সেদিন দুই পক্ষের বক্তব্য শুনে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

ড. দীনবন্ধু পাল বলেন, নিচে সামান্য জায়গা ছাড়া হলেও উপরে ভবনের ছাদ বেরিয়ে চলে এসেছে। এভাবে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণভাবে ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে। যে কোন সময় ভবন তার জমিতে ভেঙে পড়তে পারে। তাছাড়া ছাদের পানি পড়ছে তার জমিতে। তাই তিনি আরডিএ কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেছেন। তবে অভিযোগ করার পর আরডিএ নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু তারপরেও নির্মাণ কাজ কন্ধ করেন নি অসিম কুমার দাস।

তবে অসিম কুমার দাস স্বীকার করেন তার ভবনের কোন নকশার অনুমোদন নেই। তিনি বলেন, জায়গাটি সংকীর্ণ। এ রকম জমিতে ভবন নির্মাণের অনুমোদন পাওয়া যাই না। নকশার অনুমোদন পাওয়া গেলে নেয়া হতো। আরডিএ শুনানির জন্য ২৮ অক্টোবর ডেকেছে। সেখানে উপস্থিত হয়ে এসব বিষয়ে কথা বলব। তবে নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখার ব্যাপারে তিনি কোনো মন্তব্য করেন নি।

আরডিএ কর্তৃপক্ষের অনুরোধ পরেও নির্মাণ কাজ অব্যাহত থাকার ব্যাপারে রাজপাড়া থানার ওসি শাহাদাত হোসেন খান বলেন, থানা থেকে দুইবার পুলিশ পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তারপরেও চুপিসারে নির্মাণ কাজ করছে বলে শুনেছি। নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখলে অসিম কুমার দাসের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  • 75
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • রোহিঙ্গাদের জন্য আরও ২০০ মিলিয়ন দেবে যুক্তরাষ্ট্র
  • সন্ধ্যার দিকে নিম্নচাপটি খুলনা উপকূল অতিক্রম করতে পারে
  • ‘করাচির ঘটনাই প্রমাণ করে ইমরান খান দেশ চালাচ্ছেন না’
  • দেশে করোনা শনাক্ত ও মৃত্যুর সর্বশেষ তথ্য
  • পয়েন্ট ভাগাভাগি হতে পারে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের
  • সেই রেমডিসিভির ব্যবহারে পূর্ণ অনুমোদন দিল যুক্তরাষ্ট্র
  • জুমার দিন নারীরা কখন নামাজ পড়বেন?
  • তর্জন-গর্জনই সার বিএনপির : কাদের
  • প্রাথমিক-মাধ্যমিকের ক্লাস ৬ দিন বন্ধ
  • রোহিঙ্গাদের ফেরত নেবে মিয়ানমার: চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • ভারতে আক্রান্ত অর্ধ লক্ষাধিক, মৃত্যু ৬৯০
  • দুই মাস পর সবজিতে স্বস্তি
  • মহাসপ্তমীতে করোনা মুক্তিতে বিশেষ প্রার্থনা
  • করোনায় সুস্থ ৩ কোটি ১১ লাখ
  • ২০১৬ সালের চেয়েও বড় ব্যবধানে জিতব: ট্রাম্প
  • উপরে