রাজশাহীতে বন্যপ্রাণী ও পাখির অভয়ারণ্য ঘোষণায় পদক্ষেপ গ্রহণের দাবিতে স্মারকলিপি

প্রকাশিত: অক্টোবর ৬, ২০২০; সময়: ৬:৩৮ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর পদ্মার চরে বা এর আশাপাশে বন্যপ্রাণী ও পাখির বিচরণস্থল এলাকায় বন্যপ্রাণীসহ পাখির নিরাপদ আবাসস্থল ও প্রজনন নিশ্চিতে অভয়ারণ্য ঘোষণায় দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের দাবিতে রাজশাহীর জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলকে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে দেড়টার দিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে তার সাথে মতবিনিময় করে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপি গ্রহণ করে জেলা প্রশাসক এ বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের লক্ষে আগামীতে একটি সভা আয়োজনে এডিসি (সার্বিক) কে নির্দেশনা প্রদান করেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে যে, সারাবিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তন ঘটছে। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে যেমন জীববৈচিত্র্য বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে তেমনি যেগুলো টিকে আছে সেগুলোও নিরাপদ বাসস্থান, খাদ্য এবং প্রজননের অভাবে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী সম্প্রতি নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে বায়োডাইভারসিটি সামিটে দেওয়া ভিডিও বার্তায় সারা বিশ্বের জীববৈচিত্র্য সুরক্ষার আহ্বান জানিয়েছেন। জীববৈচিত্র্য রক্ষা না পেলে পুরো মানবজাতিই বিলুপ্তির দিকে এগিয়ে যাবে বলে উল্লেখ করে তিনি বিশ্ব নেতাদের প্রতি পৃথিবী ও মানুষের অস্তিত্ব রক্ষার্থে জীববৈচিত্র্য সুরক্ষার জন্য পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেছেন।

স্মারকলিপিতে বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থিত বরেন্দ্র অঞ্চলটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য মন্ডিত বলে জানিয়ে বলা হয়েছে যে, খরাপ্রবণ বরেন্দ্র অঞ্চলের মানুষের জীবন জীবীকাসহ সকল প্রাণের জীবন প্রবাহে পদ্মা নদী দেহের শিরার মতো জড়িয়ে আছে। একে কেন্দ্র করেই বরেন্দ্র অঞ্চলের সভ্যতা ও জীবনের উদ্ভব ঘটেছে।

একসময় পদ্মার জলপ্রবাহ আশেপাশের নদ-নদী, খাল-খাড়িতে প্রবাহিত হয়ে কৃষিসহ জীববৈচিত্র্যের উপকারে আসতো। কিন্তু দিনে দিনে পদ্মার চরগুলো দখল দুষণ আর নদীর প্রবাহ কমে যাওয়াসহ নদী দূষণের কারনে এই জনপদের মানুষসহ, পরিবেশ এবং বাস্তুসংস্থানের উপর আঘাত হানছে। একসময় এই পদ্মার চরসহ বরেন্দ্র অঞ্চলে হাজারো পাখি ও বন্যপ্রাণীর বৈচিত্র্য ছিলো। কিন্তু দিনে দিনে তা কমতে থাকে।

পরিবেশ আন্দোলন ঐক্য পরিষদ, ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ-ইয়্যাস, স্বাধীনতা চর্চা কেন্দ্র, পরিচ্ছন্ন রাজশাহী, আদিবাসী যুব পরিষদ, বরেন্দ্র ফিল্ম সোসাইটি, তারুণ্যের শক্তি ও উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বারসিক যৌথভাবে এ স্মারকলিপি প্রদান করে।

সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দ স্বাক্ষরিত এ স্মাকলিপিতে উল্লেখিত দাবিগুলো হলো: রাজশাহীর পদ্মা নদী এবং চরাঞ্চলে বন্যপ্রাণী ও পাখির নিরাপত্তা বিধানে আইনি সুরক্ষা নিশ্চিত করা, পাখি ও বন্যপ্রাণীর বিচরণস্থলগুলো পূণরুদ্ধার এবং সম্প্রসারণ করে সংরক্ষিত এলাকা ঘোষণাপূর্বক মানুষের চলাচল বন্ধ করা, পাখি এবং বন্যপ্রাণীর অগ্রাধিকার ভিত্তিক এলাকাগুলো দখলমুক্ত করে অভয়ারণ্য কার্যকর করা এবং বন্যপ্রাণী, পাখি ও পরিবেশগত শিক্ষার মানউন্নয়নে কর্মসূচী গ্রহণ করা।

মতবিনিময় ও স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী পরিবেশ আন্দোলন ঐক্য পরিষদ আহবায়ক মাহবুব টুংকু, সদস্য সচিব মো. নাজমুল হোসেন রাজু, বারসিক বরেন্দ্র অঞ্চলের সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম, আদিবাসী যুব পরিষদ সভাপতি উপেন রবি দাস, পরিচ্ছন্ন রাজশাহী আহবায়ক রফিকুল ইসলাম সেন্টু, ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ-ইয়্যাস সভাপতি মো. শামীউল আলীম শাওন প্রমুখ।

  • 105
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • শিবগঞ্জে পদ্মায় ডুবে কৃষকের মৃত্যু
  • রায়হান হত্যা : মিছিলে-স্লোগানে উত্তাল সিলেট
  • নাটোরে ট্রাক-মোটর সাইকেল সংঘর্ষে নারী নিহত
  • বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে নতুন উদ্যোগ
  • ইউএনওর চলন্ত গাড়িতে ঢুকে পড়ল বিশালাকৃতির সাপ!
  • পেঁয়াজে স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে দেশ
  • শাহজালাল বিমানবন্দরে ৩৮ হাজার ইয়াবা জব্দ
  • ভারতে সংক্রমণ কমলেও ঊর্ধ্বমুখী প্রাণহানি
  • ১৮ অক্টোবর থেকে তিন ঘণ্টা ইন্টারনেট সেবা বন্ধ!
  • প্রতিটি ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে সরকার বদ্ধপরিকর : প্রধানমন্ত্রী
  • নওগাঁ-৬ আসনে ভোটগ্রহণ শনিবার
  • ধর্ষণের বিরুদ্ধে সারা দেশে পুলিশ সমাবেশ শনিবার
  • বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর জন্য চীন থেকে এল ৭ বিমান
  • কারাগারে ফাঁসির আসামি যুদ্ধাপরাধী মাহবুবুরের মৃত্যু
  • ইরান ইস্যুতে বুদ্ধিবৃত্তিক পরিচয় দিক যুক্তরাষ্ট্র: রাশিয়া
  • উপরে