রাজশাহীতে আরডিএর নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০; সময়: ৭:৫৭ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীর হড়গ্রাম বাজার মহিষবাথান অক্টোর মোড় এলাকায় আরডিএর নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নিয়ম বর্হিভূতভাবে বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। আরডিএ কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে নকশার অনুমোদন ছাড়াই অবৈধভাবে ৭ তলা এ ভবন নির্মাণ করছেন কোর্ট মহিষবাথান এলাকার মৃত মহসিন আলীর ছেলে কায়েম উদ্দিন।

জানা গেছে, রাজশাহী মহানগরীর মহিষবাথান কোর্টের উত্তরে অক্টোর মোড় মহিষবাথান মৌজায় আরএস-৩১০ দাগে বেইজমেন্ট ও তিনতলা ছাদ স্যাটারিং পর্যন্ত ইমারত নির্মাণ কাজ করছে। নির্মাণ কাজের অনুমোদিত নকশা লঙ্ঘন করে এ বহুতল ভবন নির্মাণের জন্য আরডিএ বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেন মহিষবাথান এলাকার আব্দুল মতিন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে গত ফেব্রুয়ারী মাসের ৬ তারিখে ওই ভবনের মালিক কায়েম উদ্দিনকে আরডিএ ইমারত নির্মাণ কমিটির সদস্য সচিব মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ সাক্ষরিত ইমারত নির্মাণ আইন ১৯৫২ এর ৩ (খ) ধারা মোতাবেক কারণ দর্শানো নোটিশ করে।

সেই সাথে গত ফেব্রুয়ারী মাসের ২০ তারিখ সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে জমির সব কাগজপত্র নিয়ে কায়েম উদ্দিনকে লিখিত জবাব উল্লেখ করে আরডিএ অফিসে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয় নোটিশে। কিন্তুু তিনি আরডিএর নোটিশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এখন পর্যন্ত নির্মাণ কাজ অব্যাহত রেখেছেন। এতে চরম ঝুঁকি পূর্ণরূপে এ ভবন নির্মাণ নিয়ে আতঙ্কে রয়েছে স্থানীয়রা।

অপর দিকে, নির্মাণ কাজ বন্ধের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আরএমপি রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জকে আরডিএর ওই নোটিশের অনুলিপি প্রদান করা হয়। তার পরেও তিনি অবৈধভাবে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে ভবন নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। গত শনিবার এ ঘটনায় রাজপাড়া থানার এসআই ইকবাল ঘটনাস্থল পরির্দশন করে কাজ বন্ধের নির্দেশ দিলেও তিনি ভবন নির্মাণের কাজ অব্যাহত রেখেছেন।

এদিকে, মহিষবাথান এলকার মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে সাইদুর রহমান হড়গ্রাম বাজার অক্টর মোড়ে কায়েম উদ্দিন মহিষবাথান মৌজার আরএস ৩১০ দাগে ০১৮৬ একর জমিতে ৬ তলা ভবন নির্মাণের অনুমোদন থাকলেও অবৈধভাবে ৭ তলা ভবন নির্মাণ করছেন। অনুমদিত নকশা না মেনেই সাইদুর রহমানের সীমানা প্রাচীর ঘেঁষে মার্কেট নিমাণ করছেন। তার ভবনের ওয়াল সাইদুর রহমানের সীমানার মধ্যে চলে এসেছে। ফলে নির্মাণের সব বালু, সিমেন্ট ময়লা সাইদুর রহমানের সীমানার মধ্যে এসে পড়েছে। এ মর্মে গত ১০-০৬-২০২০ ইং তারিখে আরডিএ কর্তৃপক্ষ বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তুু এখন পর্যন্ত আরডিএ কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলে অভিযোগ করেন সাইদুর রহমান।

এ বিষয় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রাজপাড়া থানার এসআই ইকবাল হোসেন জানান, কাজ বন্ধ করার জন্য কায়েম উদ্দিনকে বলা হয়েছে। তার পরেও তিনি কাজ করছেন। আরডিএ ইচ্ছা করলে তাদের ম্যজিস্ট্রেট দিয়ে কাজ বন্ধ করে দিতে পারে বলেও জানান তিনি।

এ বিষয় রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ উপ-সহকারী প্রকৌশলী অবুল কাশেম জানান, কায়েম উদ্দিন কোর্ট হড়গ্রাম অক্টোর মোড়ে নকশার বাইরে অবৈধভাবে যে ভবন নির্মাণ করছেন তার বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। নকশার বাইরে বহুতল ভবন নির্মানটি দ্রুত ভেঙ্গে ফেলা হবে। এ বিষয় আরডিএ কর্তৃপক্ষ প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানান তিনি।

এবিষয় ওই ভবনের মালিক কায়েম উদ্দিনের সাথে একাধিক বার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

  • 204
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়ে তুলতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী
  • ডিবির প্রধান হলেন হাফিজ আক্তার
  • সোমবার থেকে দেশে বৃষ্টিপাত বৃদ্ধির সম্ভাবনা
  • নিবন্ধন সনদ জাল প্রমান হওয়ার পরও বহাল তবিয়তে প্রভাষক!
  • পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমেছে
  • রাজশাহীতে নগর ও জেলায় ৪৬৬ মণ্ডপে দুর্গাপূজা
  • উপনির্বাচন কে ঘিরে চাঙা আ.লীগের নেতাকর্মীরা
  • রাজশাহীতে বাসের যাত্রীর পায়ুপথে হেরোইন, গ্রেপ্তার ২
  • অগ্রিম টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন বুকিং করা দরকার: জাতীয় পরামর্শক কমিটি
  • কোভিড-১৯: বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি ছাড়াল সাড়ে ৯ লাখ
  • সৌদির তেল রফতানি কমলো ৬২ শতাংশ
  • আইসিইউতে আল্লামা শফি
  • আইসিইউতে অ্যাটর্নি জেনারেল
  • কানাডা প্রবাসী পাত্রী সেজে আত্মসাত ৩০ কোটি টাকা
  • বাসে আটকে রেখে তরুণীকে ধর্ষণ চালক-সুপারভাইজার-হেলপারের
  • উপরে