রাজশাহীতে অস্বাভাবিক কলার দাম

প্রকাশিত: মে ১০, ২০১৯; সময়: ৯:০১ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইফতারে আলাদা মাত্রা যোগ করে কলা। এই কলার দাম যেন আকাশ ছুঁয়েছে রাজশাহীর বাজারগুলোতে। রোজার এক সপ্তাহ আগেও এখানে কলা বিক্রি হয়েছে প্রতি হালি ১৬ থেকে ২০ টাকা। অথচ রোজার প্রথম দিন থেকে এক লাফে কলার দাম হালি প্রতি ১৫ থেকে ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকায়। এভাবে প্রতিটি কলা ৮ থেকে ১০ টাকা পিস হিসেবে বিক্রি হচ্ছে।

ভোক্তারা বলছেন, এমন চড়া দামে দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষদের নাগালের বাইরে চলে গেছে কলা। তাদের অভিযোগ, দিনের বেলা বাজার থেকে দুষ্প্রাপ্য হয়ে গেছে কলা। ইফতারের আগে মানুষ কলা কিনতে ভিড় জমাচ্ছেন বাজার এলাকায়। ব্যবসায়ীরা এ সময় বর্ধিত দামের বাইরে বিক্রি করছেন না কলা। সম্প্রতি রাজশাহীর বিভিন্ন বাজারঘুরে ভোক্তাদের এই অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।

কলার দাম বৃদ্ধির কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা কম চাষের অজুহাতে কম সরবরাহের কথা বলছেন। তবে ক্রেতাদের দাবী, এক সপ্তাহ আগেও বাজারে কলার সরবরাহ পর্যাপ্ত ছিল। দাম বাড়ানোর উদ্দেশ্যে কৃত্তিম সংকট তৈরী করছেন ব্যবসায়ীরা।

শহরের স্টেশন বাজার এলাকায় সাইকেলে চড়ে কলা বিক্রি করছিলেন জব্বার আলী। তিনি জানান, কলা উৎপাদনের কৃষকদের বেশি খরচ হচ্ছে বলে দাম বেশি। তাই কলা চাষে আগ্রহ হারাচ্ছে কৃষকরা।

সাহেব বাজার এলাকায় কলা ক্রেতা নাসির হোসেন অভিযোগ করেন, রোজা আসলে ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে কলার দাম বাড়িয়ে দেয়। এবার তারা ইফতারের কয়েকঘন্টা আগে কলা এনে বেশি দামে বিক্রি করছে। বছরের অন্যসময় ২০ টাকা হালি কলা পাওয়া গেলেও এবার দ্বিগুণ দাম গুনতে হচ্ছে।

বাজারে আরেকজন কলার ক্রেতা রকি আহমেদ বলেন, কলার এতো দাম হাওয়ার কথা নয়। রমজানে বাজার মনিটরিংয়ের অভাবে সুযোগ নেয় অসাধু ব্যবসায়ীরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে