আদালতের নিষেধ অমান্য করে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ

প্রকাশিত: মে ১, ২০১৯; সময়: ৯:৫৯ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে আদালতের নিষেধ অমান্য করে রাতে জোরপূর্বক বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নগরীর ৩নং ওয়ার্ডের ডিংঙ্গাডোবা নিমতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে রাজপাড়া থানা একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী মোয়াজ্জেম হোসেন।

অভিযোগ সূত্র ও ভুক্তভোগী মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, রাজশাহীর রাজপাড়া থানাধীন নিমতলা মোড় এলাকার মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে মোয়াজ্জেম হোসেনের ওই এলাকায় এক কাঠা জমি রয়েছে। দীর্ঘদিন আগে মোয়াজ্জেম হোসেন জমিটি তার মেয়ের নামে লিখে দেয়। প্রায় বছর দুই এক আগে তার ছোট ভাই নজরুল ইসলামের আর্থিক অভাব অনটনের বিষয় চিন্তা করে তার পরিবারসহ তাকে ওই ফাঁকা জমিতে অস্থায়ীভাবে বসবাস করতে দেয় মোয়াজ্জেম হোসেন।

বর্তমানে মোয়াজ্জেম হোসেন ওই জমিটি তার মেয়েকে বুঝিয়ে দেয়ার জন্য ছোট ভাই নজরুল ইসলামকে জমিটি ছেড়ে দেয়ার জন্য বলে। এই কথা শুনেই নজরুল ইসলাম ও তার ছেলে সাব্বির হোসেন জায়গাটি ছাড়তে অস্বীকার করেন এবং ছেড়ে দেয়া বাবদ তার কাছ থেকে দুই লক্ষ টাকা দাবী করে নজরুল ইসলাম। নিরুপায় হয়ে মোয়াজ্জেম হোসেন বাদী হয়ে রাজশাহীর আদালতে একটি উচ্ছেদ মামলা দায়ের করে। সেই মামলার সূত্রে সাময়িকভাবে ঐ জমির উপরে দু’পক্ষকেই স্থাপনা নির্মাণে বিরত থাকতে নোটিশ জারি করেন রাজশাহীর আদালত।

আদালতের নিষেধ অমান্য করে গত ২৮ এপ্রিল জোরপূর্বক ঐ জমির উপরে রাতারাতি স্থায়ীভাবে বাড়ি নির্মাণ করছে বিবাদী নজরুল ইসলাম ও তার ছেলে সাব্বির হোসেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনাস্থলে গেলে তাকে অস্ত্র দেখিয়ে মারপিট করার হুমকি দেয়। নিরুপায় হয়ে ৩০ এপ্রিল মোয়াজ্জেম হোসেন বাদী হয়ে রাজপাড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান হাফিজ জানান, আদালতের নিষেধ অমান্য করা একটি অপরাধ। এ বিষয়ে জমির মালিক মোয়াজ্জেম হোসেন বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য এসআই সমুনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। অভিযোগ অনুসারে বিবাদীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে