রাজশাহীতে ছাত্রলীগ পেটানো সেই যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: মে ১০, ২০২২; সময়: ৯:২৮ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে জেলা ছাত্রলীগ নেতার উপর হামলার অভিযোগে উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার এই যুবলীগ নেতার নাম সুমনুজ্জামান সুমন। তিনি পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুরিয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান বদিউজ্জামানের ছেলে। সুমন পুঠিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক।

হামলার শিকার হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মাজেদুর রহমান। রোববার রাতে তিনি ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের নামে মামলা করেছেন। এতে পাঁচজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিদের অজ্ঞাত রাখা হয়েছে। যুবলীগ নেতা সুমন এই ঘটনার প্রধান আসামী।

এর আগে গত রোববার রাত ৯টার দিকে পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুরিয়া ইউনিয়নের বেলপুকুর বাজারে মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে হামলায় ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুর আহত হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। তাঁর মাথায় ১৩টি ও গালে দুইটি সেলাই পড়েছে।

মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৫ জানুয়ারি বেলপুকুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পান পুঠিয়া উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করে বিজয়ী হন বদিউজ্জামান বদি। ওই নির্বাচনে মাজেদুর রহমান নৌকার পক্ষ হয়ে কাজ করেন।

এর পর থেকে এলাকায় বর্তমান চেয়ারম্যানের ছেলে ও পুঠিয়া যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সুমনুজ্জামানের মধ্য দ্বন্ধ চলছিল। এ নিয়ে উভয় পক্ষ ফেসবুকে একে অপরকে নিয়ে লেখালেখি করে আসছিল। গত রোববারের একটি ফেসবুক পোস্টের বিষয় নিয়ে মাজেদুর রহমানের সঙ্গে সুমনুজ্জামান ফোনে কথা বলেন। পরে এ বিষয়ে তাদের একাধিকবার তর্কাতর্কি হয় ফোনে। পরে রাতে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারি হয়। এতে মাজেদুর জখম হন।

বেলপুকুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, রাতেই মামলা নেওয়া হয়েছে। সকালে মামলার প্রধান অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া অন্য অভিযুক্তদের দ্রুতই গ্রেপ্তার করা হবে।

এদিকে, মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার বেলপুকুর বাজারে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। সমাবেশে সঞ্চালনা করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলে রাব্বি মুরাদ।

সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হবিবুর রহমান। এতে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি রাজিবুল ইসলাম, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি মহিবুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মনজুর রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল জলিল, সৈনিক লীগের সভাপতি আয়েস উদ্দিন প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাজেদুর রহমানের উপর ন্যাক্কারজনক হামলা চালানো হয়েছে। এই হামলার সঙ্গে জড়িতদের সবাইকে গ্রেপ্তার করতে হবে। এছাড়া বর্তমান চেয়ারম্যান নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন। তার সঙ্গে স্থানীয় সাংসদের সখ্যতা রয়েছে। আওয়ামী লীগ এই নীতিতে বিশ্বাসী নয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে