রাজশাহীর পুঠিয়ায় বিএনপির সমাবেশ ঘিরে ধোঁয়াশা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৯, ২০২২; সময়: ৯:১২ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর পুঠিয়ায় ১২ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় বিএনপির সমাবেশ ঘিরে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। উপজেলার বানেশ্বর বাজার এলাকায় এ সমাবেশ হওয়ার কথা থাকলেও এখনো প্রশাসনের অনুমতি না মেলায় নেতাকর্মীদের মধ্যে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তাকে বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে জেলা বিএনপি এ সমাবেশের ডাক দেন।

জেলা বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পুঠিয়ার বানেশ্বর এলাকার তিনটি জায়গার যেকোনো একটি জায়গা বরাদ্দ চেয়ে সংশ্লিষ্ট দফতরে সমাবেশের অনুমতির জন্য লিখিত আবেদন করা হয়। এক সপ্তাহ আগে এ আবেদন করা হলেও এখনো পর্যন্ত জায়গা বরাদ্দের অনুমোদন দেওয়া হয়নি। ফলে সমাবেশ হবে কিনা এ প্রশ্নে শঙ্কা কাজ করছে জেলা নেতাকর্মীদের মধ্যে।

পুঠিয়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির সভানেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং তাকে সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে না দেওয়ার প্রতিবাদে ১২ জানুয়ারি সমাবেশের ডাক দেওয়া হয়। দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জেলার এ সমাবেশটি পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর বাজার এলাকায় করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেলক্ষ্যে দলের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় এবং প্রস্তুতিমূলক সভা চলছে।

স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা বলছেন, এ প্রতিবাদ সমাবেশে কয়েক হাজার নেতাকর্মীর উপস্থিতি ঘটবে। সেলক্ষ্যে জেলার বিভিন্ন উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়নগুলোর নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করা হয়েছে। তবে প্রশাসন ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কোনো বাধা না আসলে জেলার মধ্যে বিগত সময়ের চেয়ে সবচেয়ে বড় সমাবেশ হবে এটি।

রাজশাহী জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ বলেন, বেগম জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে দলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী ১২ জানুয়ারি রাজশাহী জেলার সমাবেশটি পুঠিয়াতে অনুষ্ঠিত হবে। সেলক্ষ্যে পুঠিয়ার বানেশ্বর বাজারে প্রাথমিকভাবে তিনটি জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমতির জন্য কয়েকদিন আগে লিখিত আবেদন করেছি। এখনো পর্যন্ত সমাবেশের অনুমোদন পাইনি। তবে দু’একদিনের মধ্যে হবে হয়তো।

তিনি বলেন, বিএনপির সমাবেশ সফল করার সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। আর আমাদের সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় ও বিভাগীয় নেতারা।

উপজেলার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একটি সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির সমাবেশের জন্য যে তিনটি স্থানের কথা বলে হয়েছে, তার মধ্যে বানেশ্বর বাজারের কলা হাট ও গরুর হাটটি ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের পাশে হওয়ায়, সেখানে সমাবেশ করলে মহাসড়কে দীর্র্ঘ যানজোটের সৃষ্টি হবে। এছাড়া বাকি একটি স্থানের অনুমোদন নিয়েও শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

সূত্র বলছে, মহাসড়কের বাইরে সমাবেশ হলে অনুমোদনে সংশ্লিষ্ট দফতরের কোনো বাধা হবে না।

পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, বিএনপির সমাবেশের জন্য নেতাকর্মীরা আবেদন করেছেন বলে শুনেছি। তবে এখনো ওই সমাবেশের অনুমতিপত্র আমরা পাইনি।

এ ব্যাপারে পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুল হাই মোহাম্মদ আনাছ বলেন, বিএনপির সমাবেশ সংশ্লিষ্ট কোনো আবেদন এখনো আমি পাইনি। তবে যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন পেলে তারা সমাবেশ করবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে